নায়িকা শ্রাবন্তীকে কুপ্রস্তাব: খুলনায় যুবক গ্রেফতার

ভারতীয় চিত্র নায়িকা শ্রাবন্তী চ্যাটার্জিকে মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে কুপ্রস্তাব দেয়ায় মো. মাহাবুবর রহমান (৩৩) নামক এক যুবককে গ্রেফতার করেছে সোনাডাঙ্গা থানা পুলিশ। তাকে এক দিনের পুলিশ রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সোনাডাঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) রাধে শ্যাম সরকার জানান, ব্যক্তিগত মুঠোফোনে কুপ্রস্তাবসহ নানা ধরনের আপত্তিকর বার্তা প্রেরণের অভিযোগে মো. মাহাবুবর রহমান (৩৩) নামের ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করলে বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) শুনানি শেষে খুলনার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তরিকুল ইসলাম একদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

অভিযুক্ত যুবক খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানাধীন ৬/১ বকশিপাড়া রোডের বাসিন্দা সামছুল আলমের বাড়ির ভাড়াটিয়া আতিকুর রহমানের ছেলে।

কুপ্রস্তাব দেয়ার ঘটনায় ভারতের চিত্র নায়িকা শ্রাবন্তী ভারতীয় হাই কমিশনের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের কাছে বিচার চেয়েছিলেন। সেই সূত্র ধরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হয়ে পুলিশ হেড কোয়াটার্সের নির্দেশে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় ১৬ নভেম্বর মামলা দায়ের করা হয়। যার নং ১৯। সোনাডাঙ্গা মডেল থানার এসআই মো. খালিদ উদ্দিন এই মামলার বাদী।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, অভিযুক্ত মো. মাহাবুবর রহমান ভারতের  নায়িকা শ্রাবন্তীর ব্যক্তিগত মুঠোফোন নাম্বার ম্যানেজ করে ওই নাম্বারে বিভিন্ন সময় ফোন করতো। নায়িকা শ্রাবন্তী অপরিচিত নম্বরের কল না ধরায় তাকে নানা ধরনের আপত্তিকর ও কুপ্রস্তাব লিখে ম্যাসেজ দিতো মাহাবুব। এক পর্যায়ে বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে শ্রাবন্তী ভারতীয় হাই কমিশনের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের কাছে বিচার চেয়ে আবেদন করেন। ভারতীয় চিত্র নায়িকা শ্রাবন্তীকে আপত্তিকর ম্যাসেজ প্রদানে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলেও মামলায় উল্লেখ করা হয়।

এ ব্যাপারে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মমতাজুল হক জানান, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৮/৩১ ধারায় মামলা দায়েরের পর আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh