লালমনিরহাটে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী দুই ভাই পেলেন সরকারি ঘর

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার উত্তর সির্ন্দুনা গ্রামের পণ্ডিতপাড়া এলাকার দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী দুই ভাই শাহিন মিয়া ও সাজু মিয়া পেলেন সরকারি ঘর।

‘জমি আছে, ঘর নেই’, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ প্রকল্পের মাধ্যমে দুই ভাইকে বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার উদ্যোগ নেয় হাতীবান্ধা উপজেলা প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, বসতবাড়ি নির্মাণের কাজ চলমান। ১০ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে নির্মাণকাজ শেষ হবে। বসতবাড়ি পেয়ে শাহিন মিয়া ও সাজু মিয়া বেশ খুশি।

জানা যায়, তিস্তা নদীর ভাঙনে তাদের বসতবাড়ি বিলীন হয়ে গেছে। রাস্তার ধারে ছোট ভাই শাহাজাতের বাড়িতে তাদের বসবাস। ৪ মাস আগে তাদের অধিকারভিত্তিক প্রশিক্ষণ দিতে গিয়ে এ দৃশ্য দেখতে পান প্রতিবন্ধী গবেষক ও প্রশিক্ষক রুকশাহানারা সুলতানা মুক্তা। পরে প্রতিবন্ধী দুই ভাইকে নিয়ে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফরের কাছে হাজির হন রুকশাহানারা। বিস্তারিত শুনে বসতবাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন জেলা প্রশাসক আবু জাফর।

শাহিন মিয়া ও সাজু মিয়া বলেন, অনেক দিন মেম্বার-চেয়ারম্যানদের বাড়ি বাড়ি গিয়েছি। কিন্তু কেউ একটি ঘর দেয়নি। পরে মুক্তা আপার মাধ্যমে ডিসি স্যার আমাদের ঘর করে দেবেন বলে আশ্বাস দেন। ডিসি স্যার কথা রেখেছেন। আমাদের এখন আর বাড়ি নিয়ে চিন্তা নেই। আমরা এক ভাই মুদির দোকানের, এক ভাই গাভি পালনের প্রশিক্ষণ নিয়েছি। আমরা ভিক্ষা নয়, ব্যবসা করে বাঁচতে চাই।

রুকশাহানারা সুলতানা মুক্তা বলেন, আমার প্রতিষ্ঠিত সার পুকুর প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থা জেলা প্রশাসকের সহযোগিতা নিয়ে জেলার প্রতিবন্ধীদের পুনর্বাসনে কাজ করছি। শাহিন ও সাজু মুদির দোকান ও গাভি পালনে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। স্থানীয় প্রশাসন সহযোগিতা করলে তাদের পুনর্বাসনে করা সম্ভব।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না বলে সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শাহিন ও সাজুকে বসতবাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেয়ার চেষ্টাও আমরা করবো।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh