স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে স্ত্রীকে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণ’

মাগুরায় স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে (৪৫) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার রাতে মাগুরা সদর উপজেলার জাগলা গ্রামের একটি মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে অজ্ঞাত ৫ জনকে আসামি করে মাগুরা সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতনের শিকার নারী।

ভুক্তভোগীর স্বামী জানান, তিনি ও তার স্ত্রী ধান মৌসুমে বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে গিয়ে ঘোড়ার গাড়ির মাধ্যমে মাঠের ধান সংগ্রহ করে কৃষকের বাড়িতে পৌঁছে দেন। বিনিময়ে কৃষকরা যে ধান দেন, তা দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন তারা। এই কাজেরই ধারাবাহিকতায় ২০ দিন আগে চলতি আমন মৌসুমে তারা এ কাজের জন্য নিজ জেলা ঝিনাইদহ থেকে মাগুরা সদর উপজেলার জাগলা গ্রামে আসেন। নিজের কোনো থাকার জায়গা না থাকায় জাগলা এলাকার মাঠে পলিথিনের তাবু খাটিয়ে বসবাস করছিলেন তারা। শনিবার রাতে অপরিচিত ৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ চক্র ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের তাবুতে ঢুকে পড়ে। পরে ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে জিম্মি করে একটি গাছের সাথে বেঁধে তার স্ত্রীকে পার্শ্ববতী একটি পুকুরের পাড়ে নিয়ে ধর্ষণ করে।

তিনি দাবি করেন, এ সময় ধর্ষকরা তাদের কাছে থাকা ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং এ ঘটনা কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে তাদের চিৎকারে এলাকার লোকজন সেখানে এসে উদ্ধার করে। পরে পুলিশের সহযোগিতায় ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য রবিবার তার স্ত্রীকে  মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নাল আবেদীন বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ আজ রবিবার দুপুরে মাগুরা সদর থানায় অজ্ঞাতনামা ৫ জনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। ইতোমধ্যে ধর্ষিতার ডাক্তারি পরিক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতার করতে জোর অভিযান চলছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh