রাজশাহীতে মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫

রাজশাহীতে নতুন বছরের প্রথম দিনে মদপানে অসুস্থ হয়ে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরো ১১ জন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতল ও স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শুক্রবার গভীর রাত থেকে শনিবার (২ জানুয়ারি) বিকেল পর্যন্ত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। 

মৃত ব্যক্তিরা হলেন- মহানগরীর হোসেনীগঞ্জ এলাকার আইনুল ইসলামের ছেলে ফাইসাল (২৮), বাকির মোড় এলাকার উত্তমের ছেলে সাগর (২৫), হেতেমখাঁ এলাকার মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে তুহিন (২৬), কাদিরগঞ্জ এলাকার সেলিম আহম্মেদের ছেলে মুন আহম্মেদ (১৮) ও জেলার বাগমারা উপজেলার শান্তাপাড়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে সজল (২৫)।

হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার অফিসের তথ্যমতে, তাদের মৃত্যুর কারণ হিসেবে অ্যালকহোল পয়জনিং উল্লেখ রয়েছে। তুহিন শনিবার বিকাল ৪টার দিকে মারা যান। আর মুন আহম্মেদের মৃত্যু হয় শনিবার রাত ৮টার দিকে। অন্য তিনজনের মৃত্যু হয় শুক্রবার রাতে। 

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত থেকেই মদপানে অসুস্থ ব্যক্তিরা হাসপাতলে আসতে শুরু করে। মোট ১৫ জন চিকিৎসাধীন ছিলেন ১৬ ও ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে। এদের মধ্যে ৫ জন মারা গেছেন। বাকি ১০ জন চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মদের পয়জনিংয়ের কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত করে বলা যাবে। 

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ছাড়াও আরো একজন রাজশাহীর বেসরকারি সিডিএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

এ বিষয়ে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, নগরীর বিভিন্নস্থানে মদপানের পর অসুস্থ হয়ে পড়াদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মৃত্যুর কারণ হিসেবে মদপানই মনে করা হচ্ছে। তবে, ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর আরো নিশ্চিত করে বলা যাবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh