আখাউড়ায় মেয়র প্রার্থীকে জুতাপেটা করার অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া বর্তমান মেয়র তাকজিল খলিফার এক সমর্থকের বিরুদ্ধে আরেক মেয়র প্রার্থী নুরুল হক ভূইয়াকে জুতাপেটা করার অভিযোগ উঠেছে। 

তিনি এঘটনায় আখাউড়ায় থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। গতকাল বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাত পৌনে ১০টার দিকে উপজেলা সদরের সড়কবাজারে এ ঘটনা ঘটে। 

নুরুল আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের তিনবারের চেয়ারম্যান ও আখাউড়া পৌরসভার সাবেক পৌর মেয়র। তিনি মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। গত বুধবার রাতে থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগে তিনি দলীয় মনোনয়ন পাওয়া বতর্মান মেয়রের সমর্থক সোহাগ মোল্লার নাম উল্লেখ করেছেন। সোহাগ উপজেলার দেবগ্রামের কাদের মোল্লার ছেলে।

আখাউড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও বর্তমান মেয়র তাকজিল খলিফা মেয়রপদে পুনরায় দলীয় মনোয়ন পান। 

স্থানীয় লোকজন, নুরুল ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার রাতে সাড়ে ৯টা থেকে পৌনে ১০টার দিকে উপজেলার সড়কবাজারে সাইফুল ইসলামের চায়ের দোকানে বসে চা পান করছিলাম নুরুল। সেসময় কেন্দ্র থেকে পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আখাউড়ায় বর্তমান মেয়র তাকজিল খলিফার নাম ঘোষণা করা হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বেগের নেতৃত্বে একটি আনন্দ মিছিল বের হয়।  মিছিলের পেছনে থাকা সোহাগসহ আরো কয়েকজন ওই চায়ের দোকানে যান। বর্তমান মেয়রের বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সোহাগ মেয়র প্রার্থী নুরুলকে জুতা দিয়ে পেটান। পরে এঘটনায় তিনি রাতেই আখাউড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। 

নুরুল বলেন, আমি ওই দোকানে বসে চা খাচ্ছিলাম। আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া বর্তমান মেয়রের পক্ষে উপজেলায় আনন্দ মিছিল বের হয়। কিছু বুঝে উঠার আগেই মিছিলের পেছন থেকে সোহাগসহ কয়েকজন চায়ের দোকানে আসে। সোহাগ আমাকে লাঞ্ছিত করে দ্রুত সেখান থেকে চলে যান। মেয়র প্রার্থী হওয়ায় সোহাগ এমনটি করেছেন বলে তিনি দাবি করেন।  

আখাউড়া পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও মনোনয়ন পাওয়া তাকজিল খলিফা বলেন, নুরুলকে জুতাপেটা করার ঘটনা তিনি জানেন না। তিনি ঢাকায় আছেন। যদি এমন কিছু হয়ে থাকে তাহলে পুলিশ অবশ্যই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে। যদি সে দলের কেউ হয়ে থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমদ বলেন, নুরুল হক ভূইয়ার অভিযোগটি আমরা পেয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh