শ্লীলতাহানির ঘটনা ২০ হাজার টাকায় মীমাংসার চেষ্টা

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় ফাঁকা বাড়িতে এক গৃহবধূকে (২৮) ষষ্ঠী সরকার নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। 

এ ঘটনা স্থানীয় একটি মহল ২০ হাজার টাকায় আপস করার জন্য চাপ দেয়। পরে ওই নারী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ষষ্ঠী সরকার উপজেলার ঝলমলিয়া বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী ও একই এলাকার সম্ভু চরণশীলের ছেলে। গত ১১ জানুয়ারি প্রতিবেশি ওই গৃহবধুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। 

ওই নারীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো গত ১১ জানুয়ারি সকালের দিকে বাড়ির লোকজন যে যার মতো কাজে চলে যায়। এ সময় ফাঁকা বাড়িতে ওই গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে ষষ্ঠী সরকার। তখন ওই গৃহবধু চিৎকার শুরু করলে আসে পাশের লোকজন ছুটে আসেন। বিষয়টি টের পেয়ে ষষ্ঠী পালিয়ে যায়। আর এ বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে ষষ্ঠী স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজনদের মাধ্যমে ওই পরিবারকে চাপ দিতে থাকে। 

এক পর্যায়ে ওই গৃহবধূ গতকাল বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে নারী নির্যাতন আইনে থানায় একটি অভিযোগ দেয়। এ খবর পেয়ে ওই প্রভাবশালী মহল গত রাতেই একটি সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে ভূক্তভোগীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে দেবেন বলে আশ্বাস দেন। 

পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মানিক মন্ডল বলেন, গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় গতরাতে একটি সালিশ বসেছিল। সালিশকারীরা ভূক্তভোগী ওই পরিবারকে কিছু জরিমানা আদায় করে দিবেন এমন ঘটনা শুনেছি। আবার ওই গৃহবধূ থানায় লিখিতভাবে নারী নির্যাতনের একটি অভিযোগ করেছেন।

তবে ষষ্ঠী বলেন, ওই গৃহবধূর সাথে শ্লীলতাহানি নয়, তার সাথে আর্থিক একটা লেনদেন বিষয় রয়েছে। যা গতকাল রাতে এলাকায় বসে একটি আপোস মীমাংসা করা হয়েছে। আর থানায় অভিযোগ দেয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার ওই ভূক্তভোগী গৃহবধু শ্লীলতাহানির একটা অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগটি এখন তদন্তাধীন রয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh