নগ্ন ভিডিও ধারণ করে প্রতারণা, আটক ৬

আটক প্রতারণা চক্রের ছয় সদস্য। ছবি: চাঁদপুর প্রতিনিধি

আটক প্রতারণা চক্রের ছয় সদস্য। ছবি: চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুরে বিভিন্ন কাজের নামে পুরুষদের বাসায় ঢেকে নিয়ে জিম্মি করে নগ্ন ভিডিও ধারণ করে অর্থ আদায় করছে একটি চক্র। এমন অভিযোগে নারী-সহ প্রতারক চক্রের ছয় সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১১ মে) দুপুর ২টার দিকে চাঁদপুর মডেল থানায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) স্নিগ্ধা সরকার প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে এসব তথ্য জানান।

এর আগে ভোর ৪টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- শহরের ট্রাকঘাট জিহান পাটওয়ারী স্ত্রী তাসলিমা আক্তার জেরিন (২০), চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া থানার বাঙ্গালখালীয়া এলাকার সাদিয়া বেগম (২৭), ফরিদগঞ্জ উপজেলার সকদি রামপুর বেপারী বাড়ী হাসিনা বেগম মুন্নি (৩৫), হাজীগঞ্জ রাজারগাঁও প্রধানিয়া বাড়ির আয়েশা আক্তার নিপা (১৯), ফরিদগঞ্জ উপজেলার মোস্তফা (৪৫) ও একই উপজেলার উত্তর গোবিন্দপুর ইউনিয়নের খান বাড়ির কাজল খান (২২)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) স্নিগ্ধা সরকার বলেন, অভিযোগকারীর বিষয়টি তদন্ত কের সত্যতা পাই। তাকে নষ্ট ফ্রিজ মেরামতের জন্য তাসলিমা আক্তার জেরিন ড্রিম হাউস নামে বাসায় নিয়ে মাইনুল ইসলামের অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। এই চক্রের সদস্যরা সক্রিয় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পুরুষ মানুষের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রেমের সম্পর্ক করে। শহরের বিভিন্ন বাসা ভাড়া করে লোকদের ছবি তুলে প্রতারণা করে এবং টাকা আদায় করে ছবিগুলো রেখে দেয় পরবর্তীতে আবারো টাকা আদায় করার জন্য।

এ ঘটনায় প্রতারণার শিকার মো. মাইনুল ইসলাম আজ চাঁদপুর মডেল থানায় বাদী হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পুলিশ উল্লেখ করেন, প্রতারক চক্রের সদস্যরা দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন মানুষকে কৌশলে বাসায় ডেকে এনে অশ্লীল ছবি ধারণ করে অবৈধভাবে টাকা আদায় করে। এই ধরনের একটি অপরাধের ভিত্তিতে প্রতারণার শিকার মো. মাইনুল ইসলাম অভিযোগে বলেন, তাহার দোকানের পাশে ৪নং বিবাদী মোস্তফার হার্ডওয়ার দোকান আছে। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সাথে তার মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। যার ফলে মোস্তফা প্রতারক চক্রের প্রধান জেরিনের সাথে যোগসাজশে মাইনুলের ক্ষতিসাধনের অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকে। গত ৭ মে সকাল অনুমান ১০ টার দিকে মাইনুল শহরের সেবা সিটি সেন্টারে এসির কাজ করাকালীন তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর ০১৮৩৩-৬৪৬২১৯তে মোবাইল নম্বর ০১৯৫১-৬২৭২৪৮ থেকে জেরিন ফোন করে কোথায় আছে জিজ্ঞাসা করে। মাইনুল তাকে সেবা সিটি সেন্টারে আছে বলে জানায়। 

জেরিনের অনুরোধে দুপুরে মাইনুল প্রতারক চক্রের অপর সদস্য সাদিয়ার আলিম পাড়াস্থ ড্রিম হাউজ নামে বাসার নষ্ট ফ্রিজ মেরামত করার জন্য গেলে তাকে ঘরে ঢুকিয়ে গায়ের শার্ট ও কোমরের বেল্ট খুলে মোবাইলের মাধ্যমে ভিডিও ধারণ করে এবং ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। যদি টাকা না দেয় তাহলে তার স্ত্রীর কাছে ভিডিও বার্তা পাঠাবে। পরে মাইনুল তার সাথে থাকা ১০ হাজার টাকা দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

প্রেস ব্রিফিং-এ চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুর রশিদ, ওসি তদন্ত সুজন কান্তি বড়ুয়া, ওসি (অপারেশন) সানোয়ার হোসেন, (ইন্টিলিজেন্স) এনামুল হক উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh