রাবানের আনারসের চাষে আগ্রহ বাড়ছে

রাবানের আনারসের চাষে ব্যস্ত চাষি

রাবানের আনারসের চাষে ব্যস্ত চাষি

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার রাবানের সুস্বাদু ঘোড়াশাল জাতের আনারস খ্যাতি অর্জন করেছে দেশজুড়ে। স্বাদ ও গুণগত মানের কারণে এর রয়েছে আলাদা পরিচিতি। আর এ জাতের আনারসের জনপ্রিয়তা থাকায় দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে চাষাবাদও। 

পলাশ উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের রাবান এলাকায় দীর্ঘদিন থেকেই চাষ হয় ঘোড়াশাল জাতের এই আনারস। ঔষধিগুণসম্পন্ন রাবান এলাকার আনারস যেমন মিষ্টি তেমন তার স্বাদ। এ কারণে অন্য জাতের আনারসের তুলনায় এর রয়েছে ব্যাপক চাহিদা। বাজারে এক হালি আনারস বিক্রি হয় ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায়। কৃষি বিভাগের তথ্য মতে, এ বছর পলাশ উপজেলায় ১৫০ হেক্টর জমিতে ঘোড়াশাল জাতের আনারসের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে ৯০ ভাগ আনারসের চাষ হয় জিনারদী রাবান এলাকায়। রাবানের প্রায় প্রতিটির বাড়ির আঙ্গিনায় রয়েছে ছোট-বড় অনেক আনারসের বাগান। অধিকাংশ বাগানে আনারসের চাষ হয় সনাতন পদ্ধতিতে। 

গত বছরের তুলানায় এ বছর আনারসের চাষাবাদ বাড়লেও অনাবৃষ্টি আর খরায় তেমন ভালো ফলন পায়নি এখানকার চাষিরা। এ ছাড়া সনাতন পদ্ধতিতে চাষাবাদ হওয়ায় আনারসের আকারও দিন দিন ছোট হয়ে আসছে। রাবান গ্রামের আনারস চাষি অনিল বসু জানান, এ বছর তিনি এক বিঘা জমিতে আনারসের বাগান করেছেন। গত বছরের তুলনায় এবছর অনাবৃষ্টির কারণে বাগানে পানির অভাবে তেমন ভালো ফলন আসেনি। তবে বাজারে রাবানের আনারসের ব্যাপক চাহিদা থাকায় তেমন কোনো ক্ষতির মধ্যে পড়বেন না তিনি। 

রাবান কুড়াইতলী গ্রামের খোকন চন্দ্র পাল জানান, রাবানের আনারস অত্যন্ত সুস্বাদু থাকায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পাইকাররা এখান থেকে আনারস সংগ্রহ করে নিয়ে যান। এক হালি আনারস ৪০০ থেকে ৫০০ টাকাও বিক্রি হয়। 

একই গ্রামের কৃষক মাদব রায় বলেন, দীর্ঘ বছর ধরে এখানে সনাতন পদ্ধতিতে আনারসের চাষ হচ্ছে। রাবানের জমিগুলো উঁচু, নিচু, পাহাড়ি হওয়ায় সেচের কোনো ভালো ব্যবস্থা করা যায় না। যার কারণে ফলনের জন্য বৃষ্টির ওপর নির্ভর করে থাকতে হয় চাষিকে। এ বছর অনাবৃষ্টির কারণে অনেকের বাগানেই ভালো ফলন হয়নি। 

পলাশ উপজেলা কৃষি অফিসার আবু নাদির এস এ সিদ্দিকী জানান, দীর্ঘ বছর ধরে সনাতন পদ্ধতিতে আনারস চাষ হওয়ায় এর ব্যাপক হারে প্রসার ঘটেনি। তবে রাবানের এই বিখ্যাত আনারসের উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের প্রযুক্তিগত সহযোগিতার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh