৭ বছর সাজা ভোগের ভয়ে ৩২ বছর পলাতক

আব্দুল মতিন মন্ডল। ছবি : জয়পুরহাট প্রতিনিধি

আব্দুল মতিন মন্ডল। ছবি : জয়পুরহাট প্রতিনিধি

অপহরণ মামলায় ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আব্দুল মতিন মন্ডলকে ৩২ বছর পর গ্রেফতার করছে কালাই থানা পুলিশের সদস্যরা।

গতকাল সোমবার (২১ জুন) সন্ধ্যায় বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার জালশুকা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আজ মঙ্গলবার (২২ জুন) তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সাত বছরের ওই সাজা ভোগের ভয়ে মতিন টানা ৩২ বছর পালিয়ে ছিলেন। তবে শেষ রক্ষা হলো না। তার বাড়ি কালাই উপজেলার ইটাইল গ্রামে।

পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ১৯৮৯ সালের ২৫ জুন মনঞ্জুরুল হক নামে এক শিশুকে অপহরণ করার অভিযোগে কালাই থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়। আসামি ছিলেন মতিন ও একই গ্রামের ভোলা সাখিদারের ছেলে সাকামুদ্দিন সাখিদার নামে দুই ব্যক্তি। মামলায় সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে জেলা দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক দুইজনকেই সাত বছরের সাজা প্রদান করেন। সাকামুদ্দিন সাজা ভোগ করলেও দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন মতিন। 

মতিন বলেন, তিনি সাজা খাটার ভয়ে পালিয়ে ছিলেন। এত দিন পর তাকে গ্রেফতার করা হবে, তিনি কখনো ভাবেননি।

বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার জালশুকা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে কালাই থানা পুলিশ। কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মালিক জানান, আদালতের মাধ্যমে মঙ্গলবার সকালে আব্দুল মতিনকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, এছাড়াও জেলা পুলিশ গত ২৪ ঘন্টায় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপরাধমূলক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩২ জনকে গ্রেফতার করেছে। এরমধ্যে নিয়মিত মামলার আসামি রয়েছে ২০ জন ও পলাতক আসামি ১২ জন।  

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh