বাঁশের বাঁধ দিয়ে তিস্তার ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা

রংপুর জেলার মানচিত্র

রংপুর জেলার মানচিত্র

কর্তৃপক্ষের কাছে অনেক অবেদন, নিবেদন, মানববন্ধন করেও যখন কোনো ফল মেলেনি তখন রংপুর কাউনিয়ার তিস্তা নদীর ভাঙন থেকে বসতভিটা আর ফসলি জমি রক্ষায় এলাকাবাসী নিজ উদ্যোগে বাঁশ দিয়ে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নিজপাড়া ও তালুক শাহবাজ গ্রামের মানুষ এনজিও এবং বালাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যানের সহায়তায় বাঁশ সংগ্রহ করে বাঁধ নির্মাণ করেছেন।

নিজপাড়া গ্রামের স্বাধীন জানায়, প্রতি বছর তিস্তা শতশত বাড়ি ও ফসলি জমি গিলে খাচ্ছে। তিস্তা সড়ক সেতু থেকে ২কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণের জন্য মন্ত্রী, এমপিসহ কর্তৃপক্ষের কাছে বহু আবেদন নিবেদন করেও কোনো কাজ হয়নি। শুধু আশ্বাসের বাণী শুনিয়েছেন। অসহায় মানুষগুলোর কথা কেউ ভাবেন। 

মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা জানান, ভারতের গজলডোবায় পানি ছেড়ে দেওয়ায় তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধির সঙ্গে চলতি মৌসুমে আবারও ভাঙন আতংক শুরু হয়েছে। নদী-তীরবর্তী মানুষগুলো নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। 

আ. বাতেন জানান, বিশেষ করে আতঙ্কে আছেন বালাপাড়া ইউনিয়নের পাঞ্জরভাঙ্গা, নিজপাড়া, তালুকশাহাবাজ, টেপামধুপুর ইউনিয়নের কাজাইটারির, হরিচরনশর্মা, চরগনাই, বিশ্বনাথ, আজমখাঁ গ্রামের মানুষ। 

এলাকার মানুষ দিনে-রাতে পরিশ্রম করেও নদীর কিছু অংশে বাঁশ গাড়ে বাঁধ দেওয়ার চেষ্টা করেছেন যাতে তাতের বসতভিটা রক্ষা পায়। 

তিস্তা বাঁচাও নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদ এর কাউনিয়া সভাপতি মো. আলম মিয়া জানান, গণ উন্নয়ন কেন্দ্র ও অক্সফ্যামের সহযোগিতায় ৩৫০০ বাঁশ ও শ্রমিকসহ এলাকার লোক মিলে জায়গায় জায়গায় বাঁশ গেড়ে বাঁধ তৈরি করা হয়েছে, যাতে ভাঙ্গন কমে। বাঁশের বাঁধ দেওয়ায় কিছুটা ভাঙন কমবে বলে তিনি আশা করেন। 

এলাকবাসীর অভিযোগ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখনো কোনো ব্যবস্থা করা হয়নি। মানুষের বাড়ি-ঘর, ফসলি জমি রক্ষায় দ্রুত বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছে এলাকবাসী।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //