নির্বাচনের তিনদিন পর মেম্বার প্রার্থীর মরদেহ মিলল মাছের প্রজেক্টে

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে নির্বাচনের তিনদিন পর মাছের প্রজেক্ট থেকে জহিরুল ইসলাম (৫৩) নামে এক ইউপি সদস্য প্রার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জহিরুল উপজেলার বজরা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত হায়াত আহমদের ছেলে এবং একই ওয়ার্ড থেকে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া ইউপি নির্বাচনে তিনি অংশ নিয়েছিলেন।

আজ রবিবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে উপজেলার বজরা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ছনগাঁও গ্রামের রাস্তা সংলগ্ন একটি মাছের প্রজেক্ট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।  

নিহতের ছোট ভাই জাকির জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে কে বা কারা আমার ভাইকে মুঠোফোনে কল করে ডেকে নেয়। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। আজ সকাল ৬টার দিকে রাস্তার পাশে একটি জমিতে ওনার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় এলাকাবাসী। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জহির স্থানীয় বজরা বাজারের একজন ব্যবসায়ী ছিল। গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে তিনি ইউপি সদস্য (মেম্বার) প্রদপ্রার্থী ছিলেন। ওই নির্বাচনে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। তালা প্রতীকে ওই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে তিনি দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন।    

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে সুরতহাল সম্পন্ন করে মরদেহ থানায় এনে রেখেছে। নিহতের গায়ে আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।  

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //