বরিশালে বিপুল পরিমাণে গুলি উদ্ধার

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় থ্রি নট থ্রি রাইফেলের এক হাজার পাঁচশ’ ৫৪ গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। গুলিগুলো মুক্তিযুদ্ধের সময়কার বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের কালুপাড়া এলাকায় সরকারি প্রকল্পের গৃহনির্মাণের জন্য মাটি খুড়তে গেলে গুলিগুলো খুঁজে পান শ্রমিকরা।

বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধারের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবুল হাশেম, ওসি মাজহারুল ইসলাম, গৈলা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল হোসেন টিটুসহ অন্যরা ঘটনাস্থালে উপস্থিত হন। পরে পুলিশ সেগুলো হেফাজতে নেয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবুল হাশেম জানান, সরকারিভাবে ভূমিহীনদের জন্য গৃহনির্মাণের জন্য ২২ ফেব্রুয়ারি গৈলা ইউনিয়নের কালুপাড়া মৌজায় ৩০ শতক জমি অধিগ্রহণ করে সরকার। ওই জমিতে ১৫টি পাকা বাড়ি নির্মাণের জন্য ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে কাজ শুরু করেন শ্রমিকরা। শুক্রবার সকালে বাড়ির কাজের জন্য লে-আউট দিতে মাটি খনন করতে গেলে মাত্র এক বা দেড় ফুট নিচে শ্রমিকেরা ওই গুলিগুলো দেখতে পান। পরে সেগুলো উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে গৈলা ইউনিয়নের কালুপাড়া গ্রামের ওই স্থানে রাজাকারদের ক্যাম্প ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, দেশ স্বাধীনের পরবর্তী সময়ে রাজাকাররা এসব গুলি মাটির নিচে লুকিয়ে রাখে। সেগুলোই মাটি খননের সময় পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হয়েছে। গৃহনির্মাণের কাজ অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গুলি উদ্ধারের খবর পেয়ে থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাজহারুল ইসলাম, এসআই মিজানুর রহমান, এসআই মিল্টন মন্ডল ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের উদ্ধার করা বন্দুকের গুলি তাদের হেফাজতে নেন। এবং জব্দ তালিকা তৈরি করেন।

পরিদর্শক মাজহারুল ইসলাম জানান, পরিত্যক্ত ও নিস্ক্রিয় অবস্থায় উদ্ধার করা এক হাজার পাঁচশ’ ৫৪ গুলি তাদের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এই গুলিগুলো শক্তিশালি থ্রি নট থ্রি রাইফেল ও এলএমজি’তে ব্যবহার করা হয়। এগুলো অর্ধশত বছর আগে থেকে মাটির নিচে ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। গুলিগুলো মরিচা ধরেছে। এগুলো নিস্ক্রিয়। বিষয়টি জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে। তাদের নির্দশনা অনুযায়ি পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //