ইজিবাইকচালকের বিরল সততা! ফিরিয়ে দিলেন মালিকের ব্যাগভর্তি টাকা

হাজার হাজার টাকার নোটসহ ব্যাগভর্তি টাকা পেয়েও তা ফেরত দিলেন এক দরিদ্র ইজিবাইকচালক। ওই ব্যাগে ছিল নগদ এক লাখ ৭৭ হাজার টাকা। টাকা ফেরত পেয়ে খুশিতে আত্মহারা টাকার মালিক চালককে পাঁচ হাজার টাকা দিতে যান। 

তবে ঘর্মাক্ত আর পরিশ্রান্ত মুখে এক চিমটি হাসি দিয়ে তা বিনয়ের সাথে ফেরত দিয়ে ইজিবাইকচালক বলেন, ‘আপনার টাকা আপনাকে ফেরত দিতে পেরেছি এটাই বড় কথা!’

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল সোমবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজলার মালিপাড়া গ্রামে। ইজিবাইকচালকের নাম আনোয়ার হোসেন, তার বাড়ি শৈলকুপা পৌরসভার মালিপাড়া গ্রামে। আর ব্যাগভর্তি টাকার মালিক ছিলেন শৈলকুপার ধাওড়া মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার শিকদার কলেজের প্রভাষক আশরাফুল ইসলাম। তার বাড়িও শৈলকুপা উপজেলার বড়িয়া গ্রামে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, ধাওড়া মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার শিকদার কলেজের প্রভাষক আশরাফুল ইসলাম শৈলকুপার রুপালী ব্যাংক থেকে এক লাখ ৮৭ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। পরে সেখান থেকে ১০ হাজার টাকা দেনা পরিশোধ করে ব্যাগভর্তি বাকি টাকা নিয়ে ইজিবাইকে উঠেন। তবে ভুলক্রমে ব্যাগ রেখে নেমে পড়েন। পরে টাকার কথা মনে পড়লে ইজিবাইক চালককে খুঁজতে থাকেন। কারা তখন পাশের যাত্রী ছিল তাদের খোঁজ করেন, পরে জানতে পারেন ইজিবাইকচালকের বাড়ি মালিপাড়া; তবে কে তিনি তা শনাক্ত বা পরিচয় নিশ্চিত হতে না পেরে হতাশ হয়ে পড়েন। উপায়ান্তর না পেয়ে শৈলকুপা থানায় জিডি করতে যান। 

এরই মধ্যে ইজিবাইকচালক বাড়িতে পৌঁছালে গাড়িতে থাকা ব্যাগটি তার স্ত্রীর নজরে আসে। তখনো ইজিবাইকচালক আনোয়ার জানেন না তার গাড়িতে রাখা ব্যাগে এতগুলো টাকা আছে। স্ত্রীর কথা শুনে ব্যাগ খুলে দেখেন হাজার হাজার টাকা, যার সবই এক হাজার টাকার নোট। টাকার দুইটি বান্ডিলের সাথে ভিজিটিং কার্ড ও কাগজপত্র পড়ে শৈলকুপার মালিপাড়া মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে অবগত করে ব্যাগভর্তি টাকা রেখে আসেন।

পরে শৈলকুপা থানা পুলিশ জানতে পারে, মালিপাড়া মাদ্রাসায় হারিয়ে যাওয়া ওই টাকা জমা রাখা হয়েছে। তখন থানার ওসি আমিনুল ইসলাম উভয় পক্ষকে থানায় ডেকে প্রকৃত মালিককে তার টাকা বুঝিয়ে দেন। একইসাথে আনোয়ারের সততার জন্য নগদ ৫০০ টাকা পুরস্কার দেন। আর প্রভাষক মাওলানা আশরাফুল ইসলাম পাঁচ হাজার টাকা দিতে চাইলেও তা নেননি আনোয়ার।

ঘটনা প্রসঙ্গে মাওলানা আশরাফুল বলেন, রুপালী ব্যাংক থেকে এক লাখ ৮৭ হাজার টাকা তুলেছিলেন পারিবারিক ও অন্যান্য খরচাদি ও দেনা পরিশোধের জন্যে। ব্যাংক থেকে নেমে ইজিবাইকে উঠেন,তারপর ভুল করে টাকার ব্যাগ রেখে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন আর খুঁজে পাননি। 

ইজিবাইক চালকের সততার কারণে হারিয়ে যাওয়া এতগুলো টাকা ফেরত পেয়েছেন জানিয়ে আশরাফুল বলেন, খুশি হয়ে তাকে পাঁচ হাজার টাকা দিতে গেলে ইজিবাইকচালক তা বিনয়ের সাথে ফেরত দিয়ে বলেছেন টাকাগুলো মালিকের হাতে ফেরত দিতে পেরেছেন এটাই প্রাপ্তি। 

শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম জানান, টাকা হারিয়ে থানায় জিডি করতে আসে আশরাফুল নামে এক ব্যক্তি। পরে খবর পায় টাকাগুলো মাদ্রাসায় ইজিবাইক চালক গচ্ছিত রেখেছে। পরে সেখান থেকে টাকা নিয়ে উভয়পক্ষকে থানায় এনে প্রকৃত মালিককে টাকা ফেরত দেয়া হয়। ইজিবাইক চালকের এমন সততা দেখে তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। 

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //