তালাক দেওয়া স্ত্রীকে ফাঁসাতে মামাকে হত্যা

নোয়াখালীতে সদর উপজেলায় শৌচাগারের সেপটিক ট্যাংক থেকে মো. ওমর ফারুক (৩০) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধারের ১২ ঘণ্টার মধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। একই সাথে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামি আনছারুল করিমকে (৩৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার (৯ মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেপ্তারকৃত করিম কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার কালারমাছড়া ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর ঝাপুয়া গ্রামের মো. ইসমাইলের ছেলে। নিহত ফারুক একই ইউনিয়নের উত্তর ঝাপুয়া গ্রামের মৃত আলী আহম্মদের ছেলে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নোয়াখালীর সদর উপজেলার কালাদরাপ ইউনিয়নের উত্তর সাকলা গ্রামের হারুনের মেয়ে শারমিন আক্তারের সাথে আসামি আনছারুল করিমের ২০১৮ সালে বিয়ে হয়। গত ২০ এপ্রিল কাজীর মাধ্যমে তারা একে অপরকে তালাক প্রদান করে। তালাক প্রদানে পর আনছারুল করিম তার সাবেক স্ত্রীর উপর ক্ষিপ্ত হন। একপর্যায়ে সাবেক স্ত্রী ও তার পরিবারকে ফাঁসানোর জন্য আনছারুল পরিকল্পনা অনুসারে তার মামা মো. ওমর ফারুককে হত্যা করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ সমাধান করে দেওয়ার কথা বলে গত বৃহস্পতিবার (৫ মে) আনছারুল তার সাবেক স্ত্রীর বাড়িতে ওমর ফারুককে নিয়ে যান। পরিকল্পনা অনুসারে ওইদিন রাতে আনছারুল তার আরেক সহযোগীকে নিয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার সাবেক স্ত্রীর বাড়ির পাশে ওমর ফারুককে নিয়ে যান। সেখানে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন আনছারুল ও তার সহযোগী। হত্যার পর নিহতরে মরদেহ সাবেক স্ত্রীর বাড়ির শৌচাগারের সেপটিক ট্যাংকের ভেতর রেখে চট্টগ্রামে পালিয়ে যান। 

পরে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ঘটনার চারদিন পর মামলার প্রধান আসামি আনছারুলকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় আগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আনছারুলের সহযোগী রাসেল পলাতক রয়েছেন। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।

উল্লেখ্য, এর আগে গতকাল রবিবার (৮ মে) দুপুর ২টার দিকে নোয়াখালীর সদর উপজেলার ৯ নম্বর কালাদরাপ ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর চাকলা গ্রামের খোনার মসজিদ সংলগ্ন চুটকি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে ওমর ফারুকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //