কুষ্টিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় পূর্ব শত্রুতার জেরে রিপন (২৮) নামে প্রতিপক্ষের এক যুবকের উপর হামলা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখমের অভিযোগে করা মামলায় ভেড়ামারা উপজেলা যুবজোটের সভাপতি উপজেলার ৪নং চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ রবিবার (২২ মে) দুপুরে জেষ্ঠ্য বিচারিক আদালতের হাকিম জুয়েল রানার আদালতে জামিনাবেদন করেন এই মামলার এজাহার ভুক্ত ১নং আসামি হিসেবে আত্মসমর্পণ করেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপন। আদালত শুনানি শেষে জামিনাবেদন না মঞ্জুর করেন।

আদালত পুলিশের উপ-পরিদর্শক শিপন বলেন, রিপন নামের যুবকের উপর হামলা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর রক্তাক্ত জখমের অভিযোগে ভেড়ামারা থানায় ওই যুবকের চাচাতো ভাই বাদী হয়ে করা মামলার ১নং হুকুম দাতা আসামি হিসেবে আব্দুল হাফিজ তপন মামলার তদন্ত কার্যক্রমে নানাভাবে প্রভাবিত করতে পারে এমন শঙ্কার বিষয় আদালতকে অবহিত করায় বিজ্ঞ আদালত তার জামিনাবেদন না মঞ্জুর করেছেন।

উল্লেখ্য, এমাসের ১৬ তারিখ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভেড়ামারা রেল স্টেশন সংলগ্ন ঢাকা কোচ কাউন্টার ও সিএনজি স্ট্যান্ডে উপজেলার চাঁদ গ্রাম মসজিদ মোড়ের বাসিন্দা নুরুজ্জামানের ছেলে মো. রিপন বাড়ি ফেরার পথে অটোরিকশার জন্য স্ত্রীসহ অপেক্ষারত অবস্থায় একদল দুর্বৃত্ত রিপনের উপর অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এঘটনায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখম ও গুরুতর আহত রিপনকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশঙ্কাজনক রিপনের প্রয়োজনীয় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। পরিবারের লোকজন দ্রুত আহত রিপনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান এবং সে এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এঘটনায় হামলার শিকার আহত রিপনের চাচাতো ভাই উপজেলার চাঁদগ্রামের বাসিন্দা খালিল উদ্দিনের ছেলে মো. ওয়াসিম বাদী হয়ে ভেড়ামারা থানায় পূর্ব শত্রুতার জেরে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে জাসদ নেতা ইউপি চেয়ারম্যা আব্দুল হাফিজ তপনকে প্রধান হুকুমদাতা আসামিসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এমামলায় এজাহারভুক্ত বাকীরা হলেন- রেজাউল ইসলাম, ফাহাদ, সায়েম, আব্দুল হামিদ কটা, জনি, ড্যানী, রনি, আজিম ওরফে আকাশ, ইভন আলী, সুবেল ও সজিব হোসেন। 

এদের মধ্যে ছয়জনকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। আদালত গ্রেপ্তারকৃতদের কারাগারে প্রেরণ করেছেন।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //