পাবনায় ২৫ বছরের চেয়ারম্যানকে হারালেন স্বতন্ত্র প্রার্থী

পাবনার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের স্থগিত হওয়া আলোচিত সেই ভাড়ারা ইউনিয়নে নির্বাচনে দীর্ঘ ২৫ বছরের চেয়ারম্যানকে হারিয়ে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. সুলতান মাহমুদ খান। 

গতকাল বুধবার (১৫ জুন) রাত ১০টার দিকে জেলা নির্বাচন অফিসের সম্মেলন কক্ষে বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মাহবুবুর রহমান। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন- পাবনা সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা কায়ছার মোহাম্মদ। 

ভোট গণনা শেষে ফলাফলে জানানো হয়, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী মো. আবু সাঈদ খানকে  ৫ হাজার ৬০০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) প্রার্থী মো. সুলতান মাহমুদ খান। মোট ১৬টি কেন্দ্রের মধ্যে আবু সাঈদ খান পেয়েছেন ১১ হাজার ৩৩৭ ভোট এবং বিজয়ী প্রার্থী সুলতান মাহমুদ খান পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯৩৭ ভোট। 

নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. সুলতান মাহমুদ খান এক সাক্ষাতকারে সাম্প্রতিক দেশকালকে বলেন, ভাঁড়ারা হবে শান্তিময়। আমি ভাঁড়ারা ইউনিয়নকে একটি ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো। এলাকার গরীব অসহায় ও সাধারণ জনগণকে ভালোবেসে তাদের পাশে থেকে সেবা করবো। 

উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ ডিসেম্বর নির্বাচনী প্রচারণার সময় পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু সাঈদ খান (৫২) ওরফে সাঈদ চেয়ারম্যানের সাথে সংঘর্ষে আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী ইয়াসিন আলম (৩৫) নিহত হন। এ ঘটনায় ওই বছরের ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ভাঁড়ারা ইউনিয়ন পরিষদের সব (চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য, সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য) পদের নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। পরে গত ২৮ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন থেকে ১৫ জুন ভোট গ্রণের তারিখ নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করা হয়।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //