বাড়ছে পদ্মা নদীর পানি, ফেরি চলাচল ব্যাহত

পদ্মায় পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতের কারণে দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এতে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার মহাসড়কে চার কিলোমিটার এলাকায় কয়েক শত যানবাহন নদী পারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছে। ৮-১০ ঘণ্টায়ও ফেরির নাগাল পাচ্ছে না পণ্যবাহী যানবাহনগুলো।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়,  আজ রবিবার (১৯ জুন) সকাল ৬টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর গোয়ালন্দ ঘাট পয়েন্টে ২১ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছিল।

রবিবার দুপুরে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। প্রতিটি ফেরি নদী পার হতে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগছে। 

এদিকে ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস পর্যন্ত চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পণ্যবাহী ট্রাকের সিরিয়াল রয়েছে। এর মধ্যে এক কিলোমিটার এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের সিরিয়াল রয়েছে। তবে জনদুর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহী যানবাহন ও কাঁচামালবোঝাই ট্রাকগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করছে কর্তৃপক্ষ।

যশোর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ট্রাকচালক আফজাল হোসেন বলেন, শনিবার রাত ৩টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট অভিমুখে যানবাহনের দীর্ঘ সারিতে তিনি আটকা পড়েছেন। 

তিনি বলেন, দুপুর গড়িয়ে প্রায় বিকেল হতে চলল। এখনো ফেরির নাগাল পাইনি। কখন পাবো তাও বলতে পরছি না।

বিআইডব্লিউটিসি সূত্র জানায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ২০টি ফেরির মধ্যে ছোট-বড় মিলিয়ে ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। বাকি চারটি ফেরি মধ্যে দুটি ফেরি তীব্র স্রোতের বিপরীতে চলতে না পারায় নোঙর করে রাখা হয়েছে এবং দুটি ফেরি পাটুরিয়ার ভাসমান কারখানা মধুমতিতে মেরামতে রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক প্রফুল্ল চৌহান বলেন, ফেরি চলাচল ব্যহত হওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার নদী পারের অপেক্ষায় কিছু যানবাহন সিরিয়ালে আটকা পড়েছে। আশা করছি দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ চাপ কমে আসবে। তবে দুর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহী যানবাহন ও কাঁচামালের ট্রাকগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //