শতবর্ষী কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবের জরাজীর্ণ অবস্থা

শতবর্ষী কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবের চৌহদ্দির দেওয়াল যেমন জরাজীর্ণ, তেমনই ভেতরের কক্ষগুলোর রঙ, আস্তর খসে পড়ছে। এখন আর ক্লাবটিতে আগের মতো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় না। জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন ক্লাবের বর্তমান অবস্থা মন্ত্রণালয়কে জানানো হয়েছে।

জানা যায়, ইংরেজ কর্মচারিদের নিঃসঙ্গতা ও সামাজিক বিচ্ছিন্নতা কাটানোর জন্য ১৮৯০ সালে নির্মাণ করা হয় কুমিল্লা স্টেশন ক্লাব। ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীনের পর প্রশাসনের কর্মকর্তাদের চিত্ত বিনোদনের স্থান হিসাবে ব্যবহার শুরু হয়।

পরে ১৯৭৭ সালে যাত্রা শুরু করে কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবের মহিলা শাখা। একই বছর এখানে কমিউনিটি সেন্টার চালু করা হয়। সর্বশেষ ২০১৬ সালে ক্লাবের সংষ্কার করেন সাবেক জেলা প্রশাসক মো. হাসানুজ্জামান কল্লোল।

ক্লাবের কর্মচারিরা জানান, ক্লাবে বর্তমানে টেনিস, টেবিল টেনিস, কেরাম খেলার ব্যবস্থা আছে। গত কয়েক বছর তেমন কোনো প্রতিযোগিতার আয়োজন হয় না এখানে। ক্লাবের ওপরের কয়েকটি কক্ষে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা রাত্রি যাপন করেন। বিশেষ কোনো অনুষ্ঠানও হয় না এখানে।

কুমিল্লার প্রবীণ নাগরিক ছড়াকার জহিরুল হক দুলাল বলেন, এটি কুমিল্লার পুরনো একটি ভবন। ইংরেজ সরকারের আমলাদের বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছিলো। বাঙালি সংস্কৃতিতে কোনো ক্লাব ছিলো না। আগেকার দিনে কাচারি ঘর তৈরি করা হতো। এখানে মজলিসের আয়োজন হতো। ক্লাবটি এখন যে অবস্থায় আছে, এটির পরিকল্পিত সংষ্কার করা প্রয়োজন।

স্টেশন ক্লাব সভাপতি কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানান, ক্লাবের বর্তমান অবস্থা মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে। এখানে কি করা যায়, সরকার তা বিবেচনা করবে।

কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবের জরাজীর্ণ কক্ষ

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //