নেত্রকোনায় আ.লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ আহত ১০

নেত্রকোনা সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের বাঘরা বাজারে জাতীয় শােক দিবসের গণভােজের আয়ােজন নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। 

আজ সােমবার (১৫ আগস্ট) দুই গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়। গুরুতর আহত ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি, সাবেক ইউপি মেম্বার আবদুল জলিল, সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান লালু, সহ-সভাপতি  মাে. জনি মিয়া ও ছাত্রলীগ নেতা সুলতান মাহমুদ মিলনকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছ। ঘটনাস্থল থেকে আওয়ামী লীগ নেতা বিপ্লব খান ও আপ্তাব উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্রে জানা গেছ, নেত্রকোনা সদর উপজেলার চাল্লিশা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লাল চাঁন মিয়ার নেতৃত্বে বাঘরা বাজারে মনসুর আহমেদ সুপার মার্কেটের সামনে আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক গ্রুপ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বিপ্লব খানের নেতৃত্বে অপর গ্রুপ বাঘরা ফাজিল মাদ্রাসার পাশে গণভােজ ও দােয়া মাহফিলের আয়ােজন করে। এ নিয় দুই গ্রুপের মধ্যে সোমবার সকাল থেকেই উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে দুপুর ১২টার সময় দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের মাঝে তর্কবিতর্ক শুরু হয়। উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ধারালাে অস্ত্রের আঘাতে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি, সাবেক ইউপি মেম্বার আবদুল জলিল, সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান লালু, সহ-সভাপতি  মাে. জনি মিয়া, সুলতান মাহমুদ মিলন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগর সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম. যুবলীগ নেতা জুয়েল মিয়া, লিটন মিয়া, এরশাদ মিয়া ও মজিবুর রহমানসহ কমপক্ষে ১০জন আহত হয়।

খবর পেয়ে নেত্রকােনা মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও  আওয়ামী লীগ নেতা বিপ্লব খান ও আপ্তাব উদ্দিনকে আটক করে।

এ নিয়ে এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে  টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী আরো জানায়, নেত্রকোনা সদর উপজেলা শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান মানিক ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিএম খান পাঠান বিমলের গ্রুপ দুইটি, ওই দুই গ্রুপ গণভোজের খাদ্য সামগ্রীর পণ্য নিয়ে কটূক্তিমূলক কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে একটি গ্রুপ আরেকটি গ্রুপের প্যান্ডেলে হামলা চালালে এরই জের ধরে সংঘর্ষ হয়। 

নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার শাকের আহমেদ জানান, গণভোজের আয়োজন নিয়ে  দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়। এলাকায় পুলিশ মােতায়েন করা হয়েছে। এ ব্যাপার থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। 

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //