ICT Division

দুই সন্তানকে বিষ খাইয়ে হত্যার কথা ফোনে জানান শরিফুল

দিনাজপুরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহের জের ধরে সন্তান কার কাছে থাকবে এ নিয়ে বিরোধে নিজের দুই শিশু সন্তানকে বিষ খাইয়ে ‘হত্যা’ করে পালিয়েছে বাবা।

আজ শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) সকাল ৯টায় দিনাজপুরের বিরল উপজেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ঘর থেকে দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত শিশুরা হলেন- রিমন (৭) ও ইমরান (৩)। তারা বিরল উপজেলার শংকরপুর ঘোড়াপীর গ্রামের শরিফুল ইসলাম (৩৫) ছেলে। 

নিহত শিশু গুলির দাদা রফিকুল ইসলাম জানান, কিছুদিন ধরে তাদের ছেলে শরিফুল ইসলামের সাথে তার স্ত্রী উম্মে কুলসুমের পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। গত তিন মাস আগে শিশু দুটির মা উম্মে কুলসুম স্বামী সন্তানদের রেখে ঢাকায় চলে যান। সেখানে সে একটি গার্মেন্টসে চাকরি নেয়। এরপর থেকে প্রায় সন্তানদের কে দেখবে এবং কার কাছে থাকবে এ নিয়ে মোবাইলে ছেলে ও তাদের বউমার মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হতো। গত ১০ থেকে ১৫ দিন আগে শরিফুল ইসলাম তার স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসার জন্য ঢাকায় যান। সেখানে তার স্ত্রী তাকে তালাক নামার কাগজ হাতে ধরিয়ে দেয়। ফিরে এসে শরিফুল ইসলাম বৃহস্পতিবার রাতে কোন এক সময় সন্তানদেরকে বিষ খাইয়ে হত্যা করে। 

নিহত শিশুর দাদি ওছিরন বেগম জানান, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া নিয়ে বউ উম্মে কুলসুম ঢাকায় চলে যায়। সেই থেকে সে তার দুই সন্তানকে নিজের কাছে রাখতে চায়। কিন্তু আমার ছেলে এক সন্তানকে তার স্ত্রীর কাছে দিতে চায়। এ নিয়ে প্রায় মোবাইলে ঝগড়া করত তারা। বৃহস্পতিবার রাতে শরিফুল ইসলাম ও তার দুই ছেলে রিমন ও ইমরানকে বসে ভাত খাওয়াই। এরপর তারা তাদের শোয়ার ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে ঘুম থেকে উঠে বাবা ও দুই ছেলেকে তাদের ঘরে না পেয়ে সবাই আশপাশে খোঁজাখুঁজি শুরু করি। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে আমার ছেলে শরিফুল ইসলাম আমাকে ফোন করে জানায়, সে তার সন্তানদের বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে। লাশ ভবানীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ঘরে ফেলে রেখেছে। আমি ও তাদের দাদা সিমেন্টের খালি বস্তা সরিয়ে দুই নাতির মরদেহ দেখতে পাই। 

এসময় তিনি আহাজারি করতে করতে বলেন, আমি ও তাদের দাদা বলেছিলাম তোমরা কে কথায় যাবা যাও, আমরা তাদেরকে মানুষ করব। এ কেমন সন্তান আমি পেটে ধরেছিলাম যে সে তার সন্তানদের হত্যা করে। 

বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হাসান রেজা বলেন, ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে একটি পরিত্যক্ত ঘরে দুই শিশুর মরদেহ পাওয়া যায়। ঘরটির বাইরে একটি বিষের বোতল পাওয়া যায়। নিহত দুই শিশুর মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে কখন কিভাবে শিশু দুটিকে হত্যা করা হয়েছে আমরা এখন নিশ্চিত হওয়া যায়নি। 

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) আসলাম উদ্দিন বলেন, পারিবারিক বিরোধের কারণেই দুই শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত দুই শিশুর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ হয়েছে। নিহতদের বাবার খোঁজ করা হচ্ছে। এছাড়াও সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়ের করা হবে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //