গুলিবিদ্ধ সেই ইউপি চেয়ারম্যান মারা গেছেন

সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার ৪ নম্বর বড়থলি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আতোমং মারমা (৫০) মারা গেছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ মে) রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিলাইছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরোত্তম তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, গত ২১ মে দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ছিল। সেদিন আতোমং মারমা নির্বাচন শেষ করে তার গ্রামে বড়থলিতে এসেছিল এবং সেদিন রাতেই তাকে দৃর্বুত্তরা গুলি করেছিল। গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালীন বৃহস্পতিবার রাতে আনুমানিক সাড়ে এগারোটার দিকে তিনি মারা গেছেন বলে তার স্বজনরা জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২১ মে (মঙ্গলবার) রাতে ইউপি চেয়ারম্যান তার নিজ গ্রাম বড়থলিতে এক প্রতিবেশীর বাড়িতে অবস্থান করার সময় তাকে দুর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান হাতে ও পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বান্দরবানের রুমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। সেখান থেকে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়। সেখানে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার শরীর থেকে গুলি অপসারণ করে চিকিৎসকরা। তারপর থেকে লাইভ সাপোর্টে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে ছিলেন তিনি।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //