দেশীয় পাখি খাঁচায় আটকে বিজ্ঞাপন, গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা

দেশীয় পাখি খাঁচায় আটকে বিজ্ঞাপন, গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা করল বন বিভাগ।

দেশীয় পাখি খাঁচায় আটকে বিজ্ঞাপন, গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা করল বন বিভাগ।

দেশীয় টিয়া পাখি খাঁচায় আটকে রেখে বিজ্ঞাপন নির্মাণ করায় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন লিমিটেডের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বন বিভাগের বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট।

গত বুধবার (৩০ জুন) বিকেলে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক নার্গিস সুলতানা।

নার্গিস সুলতানা জানান, গ্রামীণফোনের ওই বিজ্ঞাপনে দেশীয় টিয়া পাখি প্রদর্শন করে বন্যপ্রাণী অপরাধে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে। যা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন-২০১২ অনুযায়ী দণ্ডনীয় অপরাধ। বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পক্ষ থেকে আইনটির ৩৮(২), ৪১ ও ৪৬ নম্বর ধারায় গ্রামীনফোন লিমিটেডকে অভিযুক্ত করে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে, গ্রামীণফোনের তৈরি করা বিজ্ঞাপনটি প্রচার হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে। প্রাণীপ্রেমীরা অভিযোগ তোলেন গ্রামীণফোনের এই বিজ্ঞাপনে পাখি শিকার ও খাঁচায় আটকে রাখাকে উৎসাহিত করা হয়েছে। এতে দেশে বন্য পাখি শিকারসহ বন্যপ্রাণী সংক্রান্ত অপরাধের হার বাড়তে পারে। তাই দ্রুত গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি উঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

গ্রামীণফোনের প্রচার করা বিজ্ঞাপনটিতে দেখা যায়, এক বাবা তার শিশুর জন্য খাঁচায় আটকানো একটি টিয়া পাখি নিয়ে আসেন। পাখিটির সংগে প্রথমে বাসার পালিত কুকুরের বৈরি সম্পর্ক তৈরি হলেও শেষ পর্যায়ে মেয়েটি প্রাণী দুটির মাঝে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করে দেয়। দুটি প্রাণীর সংগে মেয়েটির কথা বলাকে উদাহরণ করে প্রতি সেকেন্ড ১ পয়সায় কথা বলার অফার প্রচার করে গ্রামীণফোন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //