ইউরোপে করোনার তৃতীয় ঢেউ, দেশে দেশে লকডাউন

পোল্যান্ডের রাজধানী ওয়ারস'র জনশূন্য একটি রাস্তা। ছবি: বিবিসি

পোল্যান্ডের রাজধানী ওয়ারস'র জনশূন্য একটি রাস্তা। ছবি: বিবিসি

করোনাভাইরাস মহামারির ‘তৃতীয় ঢেউ’ ইউরোপে আঘাত করতে শুরু করেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই হুমকির মুখে নতুন করে লকডাউন আরোপ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা মনে করছেন, ইউরোপে করোনার টিকাদানে ধীরগতি ও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের ব্যবহার সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার ফলে সংক্রমণ আবার মাথাচাড়া দিচ্ছে।

করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ফ্রান্সের ১৬টি এলাকার দুই কোটি ১০ লাখ লোকের ওপর শুক্রবার মধ্যরাত থেকে আংশিক লকডাউন আরোপ করা হয়েছে। এর মধ্যে রাজধানী প্যারিসও রয়েছে। সেখানকার স্টেশনগুলো থেকে রেলে করে লোকজনকে লকডাউন শুরুর আগেই শহর ত্যাগ করতে দেখা গেছে। ব্রিটানি কিংবা লিয়ঁর মতো যেসব জায়গায় সংক্রমণ কম- তারা সেখানে চলে যাচ্ছেন।

তবে ফ্রান্সের এই নতুন বিধিনিষেধ আগের লকডাউনের মতো অতোটা কঠোর নয়। এবার মানুষকে বাজারঘাট ও ব্যায়াম করতে দেয়া হচ্ছে।

ফ্রান্সে মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৪২ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মোট মৃত্যু হয়েছে ৯২ হাজার ১৬৭ জনের।

এদিকে পোল্যান্ডে গতকাল শনিবার (২০ মার্চ) থেকে তিন সপ্তাহের লকডাউন চালু হয়েছে। জরুরি নয় এমন সব দোকানপাট, হোটেল, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ক্রীড়া ক্ষেত্রগুলো তিন সপ্তাহের জন্য বন্ধ থাকবে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, করোনার ব্রিটিশ ধরনটি খুবই সংক্রামক বলে লকডাউন দিতে হচ্ছে। জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটির হিসেব মতে, মোট সংক্রমিত লোকের শতকরা ৬০ ভাগ এই নতুন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হয়েছেন।

পোল্যান্ডে করোনায় এ পর্যন্ত ২০ লাখ ৩৬ হাজার ৭০০ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৯ হাজার ১৫৯ জনে।

জার্মানিতেও সংক্রমণ দ্রুতহারে বাড়ছে। চ্যান্সেল আঙ্গেলা মেরকেল জরুরি পদক্ষেপ হিসেবে লকডাউন আরোপের সম্ভাবনার কথা বলেছেন। বেলজিয়াম ও সুইটজারল্যান্ডে করোনার বিধিনিষেধ শিথিল করার পরিকল্পনা বাতিল করা হয়েছে।

অন্যদিকে ব্রিটেন, জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসহ একাধিক ইউরোপীয় দেশে লকডাউনবিরোধী বিক্ষোভও হচ্ছে। এগুলোতে পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষও হয়েছে। বিক্ষোভের সময় জলকামান নিক্ষেপ, পুলিশের লাঠিচার্জ ও বেশ কিছু লোককে আটকের ঘটনাও ঘটেছে। 

জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের আজ রবিবার (২১ মার্চ ) সকালের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আরো প্রায় ৫ লাখ ৭ হাজার মানুষ করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। একই সময়ে মারা গেছেন ৮ হাজারের বেশি।

বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১২ কোটি ৪৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪৭ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২৭ লাখ ২২ হাজার ১০৯ জনের। 

আর ভাইরাসটিতে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯ কোটি ৯৪ লাখ ২১ হাজার ৪৫৬ জন। -বিবিসি

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh