শীতে চাই শাল

ফ্যাশনের পাশাপাশি শীত নিবারণেও শালের বিকল্প নেই। চমৎকার এই এক টুকরো কাপড় গায়ে জড়িয়ে নিলেই হলো, শীত পালাতে বাধ্য। 

এখন বিভিন্ন ডিজাইন আর প্যাটার্নের ডাবল কিংবা সিঙ্গেল শাল পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য তৈরি করা হয়েছে নান্দনিক শাল। নারীদের তুলনায় পুরুষদের শাল একটু বড় ও সাদামাটা হয়ে থাকে। তবে সবচেয়ে বেশি নান্দনিক সৌন্দর্য মেয়েদের শালে। 

এ বছর খাদি, উল, কটন কাপড়ের শাল দেখা যাচ্ছে। হাতে বোনা মোটা কটনের শালও রয়েছে। এছাড়াও কাশ্মীরি, দেশি সিল্কের শাল তো রয়েছেই। ডিজাইনের ক্ষেত্রে শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজের সাথে ব্যবহার উপযোগী শালে ক্রিস্টাল ও স্টোন ব্যবহার করা হয়। শীতে শালের ব্যাপক কালেকশন নিয়ে বাজারে নেমেছে দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো। 

শীতের সময় রঙের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই বাজারে এসেছে রঙ-বেরঙের শাল। শীতের শুষ্কতাকে সজীব করতেই সবুজ, হলুদ, নীল, লাল, কমলা, বেগুনি রঙের শাল এনেছে ফ্যাশন হাউসগুলো। এসব শালেও আছে স্ক্রিনপ্রিন্ট, টাইডাই, এমব্রয়ডারি কিংবা হাতের কাজ। মেয়েদের জিন্স, টি-শার্ট কিংবা সালোয়ার-কামিজের সাথে ম্যাচ করা শালে হাতের কাজ ও এমব্রয়ডারির প্রাধান্য রয়েছে। পাশাপাশি পাইপিন দিয়ে বর্ডারে কাজ করে আনা হয়েছে নতুনত্ব।

উলেন কিছু শাল রয়েছে, যা দেখতে খুবই আকর্ষণীয়। ওজনে খুব হাল্‌কা, কিন্তু বেশ গরম। সহজেই বহনযোগ্য বলে কদরও অনেক বেশি।

যেখানে পাবেন

যেকোনো শীতের পোশাকের দোকানে গেলেই আপনার চোখে পড়বে হরেক রকম শাল। বঙ্গবাজার, ধানমন্ডি হকার্স মার্কেট, ফার্মগেট, নিউ মার্কেটে কিছুটা কমদামে শাল পাবেন। শীতের এ সময়টায় শালের পসরা সাজায় দেশীয় ফ্যাশন হাউসগুলো। 

বাংলার মেলা, রঙ, দেশাল, নিত্য উপহার, কে-ক্রাফট, আড়ং, অঞ্জনস, ময়ূরী, নবরূপা, বিবিয়ানা, নগরদোলা, নিপুণসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস এরই মধ্যে শালের আয়োজন শেষ করেছে। 

এছাড়াও শাহবাগ আজিজ মার্কেট, বনানী ১১ নম্বর রোড, বেইলি রোড কিংবা মিরপুর ১০ নম্বরে গেলে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে নতুন নতুন ডিজাইনের শাল পাবেন।

দরদাম

বিভিন্ন মার্কেটে একটু সাধারণ মানের শালগুলো পাওয়া যাবে ৬০০ থেকে ১৩০০ টাকার মধ্যে। ফ্যাশন হাউসে কটনের শালের দাম পড়বে ৫৫০-৯০০ টাকা, খদ্দর চাদর ৬৫০-১ হাজার ৫০০, সিল্ক শাল ৬৫০-২ হাজার ৫০০, কাশ্মীরি শাল কোয়ালিটি ভেদে দাম পড়বে ৫৫০ থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত।

তাই শীতের রুক্ষতা থেকে রক্ষা পেতে আজই কিনে নিতে পারেন ফ্যাশনেবল এসব শাল।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh