ইফতারির মজাদার রেসিপি

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আমরা ইফতারে ভাজাপোড়া খেতে বেশি পছন্দ করি; কিন্তু এসব তৈলাক্ত খাবার আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই ইফতারে আয়োজন করতে পারেন ভিন্ন স্বাদের পুষ্টিকর খাবার। 

এই ধরনের কিছু খাবারের রেসিপি দিয়েছেন স্বপ্না আহম্মেদ

চিকেন হালিম


উপকরণ : মুগ, মাসকলাই, মসুর ডাল আর পোলাওয়ের চাল মিলে আধা কেজির মতো। এক কাপ পরিমাণ গম। এসব গুঁড়া করে নিন ব্লেন্ডারে বা শিলপাটায়। এতে সময় অনেক কম লাগবে। আরও যা লাগবে- মুরগি একটি ১ থেকে দেড় কেজি ওজনের ছোট পিস করে কাটা, পেঁয়াজ ৪টি কুচি করে বেরেস্তা করা, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, আদা বাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, হলুদ-মরিচ গুঁড়া মিলে ২চা চামচ, গরম মসলার গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া ২চা চামচ, ধনিয়া গুঁড়া ২চা চামচ, ধনিয়া পাতা কুচি, আদা কুচি, তেল আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : মুরগির মাংসের সঙ্গে সব মসলা মিশিয়ে মেরিনেট করে রাখুন আধাঘণ্টা। এবার বড় হাঁড়িতে তেল দিয়ে তাতে মাখানো মুরগির পিসগুলো দিয়ে নাড়াচাড়া করে অল্প পানিতে রান্না করুন ২০ মিনিট। তেল ওপরে উঠে এলে বুঝবেন রান্না হয়ে গেছে। এবার প্রথমে গুঁড়া করে রাখা সবরকম ডাল আর গমের মিশ্রণগুলো দিয়ে নাড়াচাড়া করে ৫ কাপ গরম পানি দিয়ে দিন। ভালোভাবে পানি আর মসলার সঙ্গে ডাল মিশিয়ে নেবেন। আগুনের অল্প আঁচে রান্না করুন ১ ঘণ্টা। মাঝে মাঝে নেড়ে দিতে ভুলবেন না। রান্না হয়ে গেলে নামিয়ে এর ওপরে ধনিয়া পাতা কুচি আর কুচি করা আদা, কাঁচা মরিচ, বেরেস্তা দিয়ে পরিবেশন করুন।

ফালুদা


অতিরিক্ত গরমে ইফতারিতে ফালুদা অনেক আরামদায়ক ও স্বাস্থ্যসম্মত একটি খাবার। ঢাকাসহ সারাদেশের মানুষের কাছে নানা রকমের ফালুদার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এর মধ্যে ফলের ফালুদা অন্যতম। একইসঙ্গে এটি অনেক সুস্বাদুও বটে।

উপকরণ: কনডেন্স মিল্ক আধা কাপ, দুধ ১ লিটার, সাবু দানা ১/২ কাপ, চিনি পরিমাণ মতো, নুডুলস কাপ, কাজু বাদাম ১ টেবিল চামচ, মাল্টা, আপেল, আঙ্গুর, স্ট্রবেরি, পাকা আম ও কলা কিউব করে কাটা ২৫০ গ্রাম, জেলো জমানো ২ রকমের, বরফ কুচি পরিমাণমত।

প্রস্তুত প্রণালি: প্রথমে সাবু দানা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। অন্য একটি পাতিলে পানি দিয়ে নুডুলস সিদ্ধ করে নিন। দুধ, কনডেন্স মিল্ক ও চিনি একসঙ্গে চুলায় দিয়ে ঘন করে নিন। তবে দুধ যেন নিচে লেগে পুড়ে না যায়- সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। তাই চুলায় দেওয়ার পর বার বার নাড়তে হবে সেগুলো। ঘন হওয়ার পর ওই মিশ্রণটি ঠা-া করার জন্য ১ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। এরপর অন্য একটি বাটি বা গ্লাসে পর্যায়ক্রমে প্রথমে সিদ্ধ সাবু দানা, নুডুলস এবং ঘন দুধ নিন। এবার বাদাম কুচি, ফল এসেন্স, আবার ঘন দুধ, নুডুলস, ফলের টুকরো, মাওয়া কুচি এবং সবশেষে ঘন দুধ, জেলো ও বরফ কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

গারলিক রুটি


নামিদামি ফাস্টফুডে গেলেই এই খাবারটা সবাই খেয়ে থাকেন। ‘গার্লিক রুটি’ তৈরির প্রণালি আজ শিখে নিন। সময় লাগবে মাত্র ৫-৬ মিনিট। ইফতারে সুপের সঙ্গে পরিবেশন করুন। খেতে পারেন এমনিও। তেলে ভাজা খাবারের চাইতে স্বাস্থ্যকর তো বটেই, দারুণ মজাদারও।

উপকরণ : পাউরুটি, হটডগ রোল, নরম চিজ, মাখন, রসুন বাটা, কিংবা মিহি কুচি, চিলি বা টমেটো সস সামান্য (না দিলেও হবে), লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : পনির, রসুন, সস ও লবণ একসঙ্গে মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করতে হবে প্রথমে। এরপর পাউরুটি আপনার পছন্দমতো গারলিক রুটির মতো করে টুকরো করে নিতে হবে। টুকরো রুটি রোলগুলোতে ভালোভাবে মাখন মাখিয়ে নিতে হবে। এতে চিজের মিশ্রণ লাগানো রুটির টুকরোগুলোকে সাজিয়ে ৩-৫ মিনিটের জন্য মাইক্রোওভেনে গরম করতে দিতে হবে। ইলেকট্রিক ওভেন হলে রুটি লাল ও মচমচে হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তাহলেই সবার পছন্দের গারলিক রুটি হয়ে গেল।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh