কর্দমাক্ত মাঠে দারুণ জয় পেল আবাহনী

সানডে চিজোবার গোলে এগিয়ে যায় আবাহনী লিমিটেড

সানডে চিজোবার গোলে এগিয়ে যায় আবাহনী লিমিটেড

বৃষ্টি হলেই শঙ্কা জাগে মাঠ নিয়ে। বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে  ঘাম ছুটে দুই দলের খেলোয়াড়দের। সেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কর্দমাক্ত মাঠে দারুণ জয় উপহার দিল আবাহনী লিমিটেড।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) লিগের দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছে মারিও লেমোসের দল। ১-১ ড্র হয়েছিল দুই দলের প্রথম পর্বের ম্যাচটি।

১৭ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আবাহনী। ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বসুন্ধরা কিংস। ২৮ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী।

শুরুতেই আবাহনীকে চমকে দিতে বসেছিল চট্টগ্রামের দলটি। দ্বিতীয় মিনিটে কর্নার বিপদমুক্ত করার পর নাসিরুল ইসলামের ক্রসে ছয় গজ বক্সের ঠিক সামনে থেকে নিক্সন গুইলের্মের ভলি বেরিয়ে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে। প্রথম পর্বে এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের গোলে আবাহনীকে রুখে দিয়েছিল তারা।

মোহামেডানের বিপক্ষে ড্র ম্যাচে একের পর এক আক্রমণ সাজিয়ে দেওয়া জুয়েল রানা ২১তম মিনিটে ক্রস বাড়িয়েছিলেন চিজোবাকে, কিন্তু নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ডের হেড যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।

২৪তম মিনিটে রায়হানের থ্রু থেকে সুযোগ পেয়েছিলেন জুয়েল। কিন্তু বক্সের ভেতর থেকে তার শট দূরের পোস্টের বাইরে দিয়ে গেলে আবাহনীর গোলের অপেক্ষা বাড়ে।

প্রিমিয়ার লিগে ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী গোল পেয়ে যায় ৩৪তম মিনিটে। রাফায়েল অগাস্তোর ক্রসে বুক দিয়ে বল নামিয়ে বাঁ পায়ের জোরালো শটে জাল খুঁজে নেন চিজোবা। নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ডের গায়ের সঙ্গে সেঁটে থাকলেও প্রতিরোধ গড়তে পারেননি ডিফেন্ডার নাসিরুল।

তিন মিনিট পর নাসিরুল বিপদ বাড়াতে বসেছিলেন আরও। বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে জড়িয়ে দিচ্ছিলেন নিজেদের জালে। পোস্টে লেগে তা ফিরে আসায় ব্যবধান বাড়েনি। ৩৯তম মিনিটে অগাস্তোর কর্নারে মাসিহ সাইঘানির হেড ফেরান নাসিরুল।

৫২তম মিনিটে মানিক মোল্লার বল ক্লিয়ার করার চেষ্টায় মামুনুলের পায়ে লাগার পর বক্সে পেয়ে যান চিজোবা। তার ফিরতি পাস পেয়ে ডি-বক্সের একটু উপর থেকে জোরালো শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মামুনুল।

৬২তম মিনিটে চিনেডু ম্যাথিউয়ের আড়াআড়ি ক্রসে গুইলের্মের হেড শহীদুল আলম সোহেলের হাত ফসকে বেরিয়ে যেতে বসেছিল। দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় গ্লাভসবন্দী করেন এই গোলরক্ষক।

দশ মিনিট পর গুইলের্মেকে তুলে মান্নাফ রাব্বীকে নামান চট্টগ্রাম আবাহনী কোচ। ৮৬তম মিনিটে রাব্বীর থ্রু বল এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বক্সে পেয়ে যান মোনায়েম খান রাজু। এই মিডফিল্ডারের শট বাইরের জাল কাঁপালে ঘুরে দাঁড়ানো গোলের দেখাও পায়নি চট্টগ্রাম আবাহনী।

আন্তর্জাতিক বিরতির পর ফের শুরু হওয়া লিগে প্রথম জয় পেল আবাহনী। আগের ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানের বিপক্ষে ১-১ ড্র করেছিল তারা। অন্যদিকে টানা তিন জয়ের পর হারল বন্দরনগরীর দলটি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //