ICT Division

জিতলেই শেষ ষোলোতে পা রাখবে ইংল্যান্ড

প্রথম ম্যাচে দারুণ ফুটবল খেলেছে ইংল্যান্ড। ইরানকে রীতিমতো গোল বন্যায় ভাসিয়ে দিয়ে শেষ ষোলয় এক পা দিয়ে রেখেছে। কাতার বিশ্বকাপে এবার হট ফেভারিট ইংল্যান্ড। সেই তুলনায় খুব সাধারণ দল যুক্তরাষ্ট্র। আল বায়েত স্টেডিয়ামে আজ তারা মুখোমুখি হবে। রাত ১ টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

যে ফর্মে খেলছে হ্যারিকেনের দল, তাতে ফলাফল তাদের পক্ষে যাবে বলে ধরে নেওয়া যায়। চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইরানকে ৬-২ গোলে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। সেই ম্যাচে এমনই দাপট ছিল যে, প্রতিপক্ষের তেমন কিছু করার ছিল না। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষেও পরিসংখ্যান ইংলিশদের পক্ষে। ১৯৫০ সালের পর মার্কিনীদের কাছে ফুটবল ম্যাচ হারেনি তারা। ২০১০ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলে ড্র করেছিল ইউএসএ। এখন পর্যন্ত ওটাই তাদের সেরা। ২০১৮ সালে প্রীতি ম্যাচে দেখা হয়েছিল দুই দলের। ইংল্যান্ড সেই ম্যাচ জিতেছিল ৩-০ তে।

যদি আজও তেমন একটা ফল হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। কাতার বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্র ১-১ গোলে ওয়েলসের সাথে ড্র করে। আজ ইংল্যান্ডের জন্য উদ্বেগের খবর হলো, অধিনায়ক হ্যারিকেনের গোড়ালির ইনজুরি। ইরানের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে খেলার সময় ডান পায়ের গোড়ালিতে চোট পেয়েছিলেন তিনি। ফুলে যাওয়ায় স্ক্যান করাতে হয়। তাতেই আজ তাকে নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। মঙ্গলবার তিনি অনুশীলন করেননি। ইরান ম্যাচের ৪৮ মিনিটে তাকে ট্যাকল করেন মোর্তেজা। তখন চোট পেলেও মাঠেই ছিলেন তিনি। ৭৫ মিনিটে তাকে তুলে নেন ইংল্যান্ড কোচ গ্যারেথ সাউথগেট।

যাই হোক, অধিনায়কের ইনজুরির অবস্থা কেমন, তা নিয়ে গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড বলেছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে হ্যারি কেন ভালোই আছে। সামান্য ব্যথা রয়েছে। তাছাড়া কোনো সমস্যা নেই। বুধবার অনুশীলন করেছে। ও আমাদের অধিনায়ক। আমরা ওর সাথেই মাঠে নামার কথা ভাবছি।’ ২০১৬ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে তিনবার ডান পায়ের গোড়ালির লিগামেন্টে এবং দুবার বাঁ পায়ের লিগামেন্টে চোট পেয়েছিলেন কেন। তবে বর্তমান ইংল্যান্ড দলে প্রতিভার যা প্রাচুর্য, তাতে মার্কিন বাধা টপকাতে বেগ পাওয়ার কথা নয়। এবার নিয়ে বিশ্বকাপে ১৬তম বার খেলছে ইংল্যান্ড। শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছে তারা একবার। ৫৬ বছর আগে। ১৯৬৬ সালে ঘরের মাঠে ফাইনালে পশ্চিম জার্মানিকে ৪-২ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতেছিল ইংল্যান্ড। এরপর থেকে অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে না। এবার দুরন্ত ফর্মে আছে সাউথগেটের দল। বাছাই পর্বে দারুণ খেলেছে। ১০ ম্যাচের ৮টিতে জিতেছে তারা। গোল করেছে ৩৯টি। খেয়েছে ৩টি।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ৬ গোল দিয়ে দুটি খেয়েছে। এতে করে আক্রমণভাগের ধার বোঝা যায়। সেই ধার বজায় থাকলে প্রতিপক্ষের যে কোনো রক্ষণভাগকে চিন্তায় থাকতে হবে। বিশ্বকাপের আগে টানা ছয়টি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে জয়শূন্য ইংল্যান্ডকে নিয়ে এবার মাতামাতি ছিল কম। কিন্তু প্রথম ম্যাচে ইরানকে ৬-২ গোলে হারানোর পর তাদের আর গোনায় না ধরে উপায় নেই। ৫৬ বছরের খরা কাটিয়ে শিরোপা ঘরে আনার জন্য সমস্বরে নতুন উদ্যমে হ্যারি কেইনদের সঙ্গ দিতে শুরু করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম। সেই স্বপ্ন পূরণের পথে এগিয়ে যাওয়া ম্যাচে আজ যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি ইংল্যান্ড। ১৯৮২, ২০০৬, সর্বশেষ ২০১৮-এর আগে আরো তিনবার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচ জিতেছিল ‘থ্রি লায়ন্স’রা। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে আজ জিতলে ওই কীর্তি ছোঁয়ার পাশাপাশি নক আউটে ওঠাও অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যাবে সাউথগেটের দলের। প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র বলে তারা সে আশায় বুক বাঁধতেও পারে! 

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে এর আগে ১১ ম্যাচ খেলে আটবারই জয়ের হাসি হেসেছে ইংল্যান্ড। এই ১১ ম্যাচে তারা গোল করেছে মোট ৩৯টি। গড়ে প্রতি ম্যাচ গোল করেছে তারা ৩.৫৪টি। অমন অতীত দেখে যারা আজ আল বায়ত স্টেডিয়ামে আরেকটি গোল উৎসবের ছবি আঁকছেন মনে মনে, তাদের জন্য তথ্য হচ্ছে বিশ্বকাপে এখনো যুক্তরাষ্ট্রকে হারাতে পারেনি ৬৬-র চ্যাম্পিয়নরা। 

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //