গণপরিবহনে নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন

দেশের অধিকাংশ কর্মজীবী প্রতিদিনই গণপরিহন ব্যবহার করে নির্দিষ্ট গন্তব্যে আসা-যাওয়া করে থাকেন। সামান্য অসচেতনতা ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা বজায় না রাখলে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়তে পারে। 

যদিও এখন করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলাচল করছে। তবুও ভিড়ের মধ্যে বাসে ওঠা, অপরিষ্কার সিটে দীর্ঘক্ষণ বসে যাতায়াতের মাধ্যমেও আপনি কিন্তু আক্রান্ত হতে পারেন।

এজন্য বিশেষ কিছু স্বাস্থ্যবিধি এ সময় মেনে না চললে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যাবে। 

জনপরিবহনে যে বিষয়গুলো মেনে চলতে হবে-

১. ঘর থেকে বের হওয়ার সময় মাস্ক পরতে ভুলবেন না। রাস্তায় বা গণপরিবহনে উঠে অযথা হাতে স্যানিটাইজার না ব্যবহার করে মাস্ক মুখ থেকে খুলবেন না কিংবা বারবার গলায় ঝুলিয়ে রাখবেন না। এতে সংক্রমণের আশঙ্কা বেড়ে যায়।

২. কোন মাস্ক ব্যবহার করছেন সেদিকেও নজর দিন। বাজারে এখন বিভিন্ন ধরনের মাস্ক পাওয়া যায়। তবে যেগুলো আপনাকে সুরক্ষা দেবে সেগুলোই ব্যবহার করুন। মাস্ক পরার পর সামনে হাত রেখে জোরে ফুঁ দিলে যদি বাতাস হাতে লাগে, তবে বুঝবেন সে মাস্কটি আপনাকে সুরক্ষা দেবে না।

৩. সুরক্ষিত থাকতে অনেকেই হ্যান্ড গ্লাভস ব্যবহার করে থাকেন। তবে একই হ্যান্ড গ্লাভস যদি আপনি বারবার পড়েন, সেক্ষেত্রে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়বে। এজন্য একবার ব্যবহারের পর ওই হ্যান্ড গ্লাভসটি আর ব্যবহার করা যাবে না। অবশ্যই খোলার সময় গ্লাভস উপরে থেকে টান দিয়ে উল্টো করে খুলে, সেভাবেই ডাস্টবিনে ফেলতে হবে।

৪. সবসময় সঙ্গে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখবেন। এটিই এখন বিপদের সঙ্গী। বারবার হাত পরিষ্কারের মাধ্যমে জীবাণু ধ্বংস করা সম্ভব। কারণ করোনাভাইরাস হাত থেকে নাক, মুখ ও চোখের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে। আর সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার উপায় থাকলে বারবার হাত ধুতে হবে।

৫. যারা ব্যাগ ব্যবহার করে থাকেন; তাদেরকে বিশেষভাবে ব্যাগটি পরিষ্কার করে নিতে হবে নিয়মিত। এতেও জীবাণু ১-২ দিন জীবিত থাকতে পারে। চামড়ার ব্যাগ ব্যবহার করবেন না, এতে জীবাণু দীর্ঘক্ষণ জীবিত থাকে।

৬. গণপরিবহনে উঠে মাস্ক খুলে কোনো কিছু খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। এ সময় বাইরের খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। কারণ যে ওই খাবারটি তৈরি করেছেন, করোনায় আক্রান্ত থাকতে পারেন। এছাড়াও খাবারের প্যাকেটেও জীবাণু লেগে থাকতে পারে।

৭. টিস্যু ব্যবহার করলে, সেটি কখনো যেখানে-সেখানে ফেলা উচিত নয়। সেই সঙ্গে যত্রতত্র কফ বা থুতু ফেলা ভদ্রতারও পরিপন্থী। আপনার যদি হাঁচি বা কাশির মতো উপসর্গ থাকে তাহলে গণপরিবহন ব্যবহার না করাই ভালো।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh