লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যা : ৪১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

লিবিয়ার একটি অভিবাসন সেন্টারে বাংলাদেশি অভিবাসীরা। ফাইল ছবি

লিবিয়ার একটি অভিবাসন সেন্টারে বাংলাদেশি অভিবাসীরা। ফাইল ছবি

লিবিয়ায় পাচার হওয়া ২৬ বাংলাদেশিকে ২০২০ সালের ২৭ মে হত্যার অভিযোগে রাজধানীর পল্টন থানায় দায়ের করা মামলায় ৪১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

সম্প্রতি ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক আছলাম আলী এই চার্জশিট দাখিল করেন। 

অন্যদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় পাঁচজনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দিতে আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। এরপর ঢাকার মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল মামলার চার্জশিট গ্রহণ করে এই পাঁচজনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন।

মামলাটি এখন বিচার শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে। রাজধানীর পল্টন থানায় মানবপাচার আইনের ৬/৭/৮/১০ এবং পেনাল কোডের ৩০২/৩২৬/২৬ ধারায় মামলাটি করা হয়।

চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন- তানজিদ ওরফে তানজিমূল ওরফে তানজিরুল (৩৬), জোবর আলী (৬২), জাফর মিয়া (৩৮), স্বপন মিয়া (২৯), মিন্টু মিয়া (৪১), শাহিন বাবু (৪৫), আলী হোসেন (৩৭), আমির হোসেন (৫৫), নজরুল মোল্লা (৪৩), আ. রব মোড়ল (৪০), সজীব মিয়া (২৫), মুন্নী আক্তার রূপসী (২০), রবিউল মিয়া (৪২), রুবেল শেখ (৩৬), আসুদুল জামান (৩৪), বাহারুল আলম (৬৭), নাজমুল হাসান (২৫), হেলাল মিয়া (৪২), কামালউদ্দিন (৫২), কামাল হোসেন (৪০), রাশিদা বেগম (৪২), নুর হোসেন শেখ (৫৫), ইমাম হোসেন শেখ (৩৫), আকবর হোসেন শেখ (৩২), বুলু বেগম (৩৮), জুলহাস সরদার (৪৫), দিনা বেগম (২৫), শাহাদাত হোসাইন (৩০), জাহিদুল আলম (৪২), জাকির মাতুব্বর (৬০), লিয়াকত আলী শেখ (৫০), নাসির বয়াতী (২৫), রেজাউল বয়াতী (৩৮), হাজী শহীদ মিয়া (৬৩), খবির উদ্দিন (৪৭), পারভেজ হাসান, কামছার মুন্সি (৩৫), মাহাবুব মুন্সি (৫৩), পারভেজ আহমেদ (৩৩), নজরুল ইসলাম সুমন (৩৮) ও কাউসার (৪০)।

অব্যাহতি পাওয়া পাঁচজন হলো- শেখ মো. মাহাবুবুর রহমান (৪৯), শেখ সাহিদুর রহমান (৪০), সাদ্দাম (২৬), কুদ্দুস বয়াতি (২৭) ও লালন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২০ সালের মার্চের ২০ তারিখের মধ্যে ৩৮ জন বাংলাদেশিকে ইতালিসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর কথা বলে পাচার করা হয়। এরপর ২৮ মে লিবিয়ার সাহারা মরুভূমি অঞ্চলের মিজদা শহরে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এতে আহত হন আরো ১১ জন। 

এ ঘটনায় ২০২০ সালের ২ জুন ৩৮ জনকে আসামি করে রাজধানীর পল্টন থানায় মামলা করেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) এইচ এম রাশেদ ফজল। অজ্ঞাতপরিচয়ে আসামি করা হয়েছে ৩০-৩৫ জনকে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //