নর্থ সাউথ শিক্ষার্থীর মৃত্যু : চালক-সহকারীর দায় স্বীকার

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাইশা মমতাজ মীম নিহতের ঘটনায় চালক মো: সাইফুর রহমান ও তার সহকারী মশিউর দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার (৮ এপ্রিল) ঢাকা মহানগর হাকিম মোশাররফ হোসেনের আদালত তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। 

এদিন রিমান্ড শেষে দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় আসামিরা স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক রিপন কুমার। 

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে, গত শুক্রবার (১ এপ্রিল) রাতে কাভার্ডভ্যানের চালক সাইফুর ও তার সহকারী মশিউরকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে খিলক্ষেত থানা পুলিশ। এ সময় জব্দ করা হয় ভ্যানটি। এরপর গত ৩ এপ্রিল দুই আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে প্রত্যেকের সাতদিন করে রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। পরে আদালত তাদের চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত শুক্রবার (১ এপ্রিল) ঢাকার উত্তরার বাসা থেকে বের হয়ে স্কুটি নিয়ে গুলশানের দিকে যাচ্ছিলেন মীম। কুড়িল ফ্লাইওভার থেকে নামার পথে একটি কাভার্ডভ্যানের সাথে তার স্কুটির ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন মীম। এসময় সড়কে মিমকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে এক পথচারী। দ্রুত কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে মিমকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। এই ঘটনার পরের দিন সন্ধ্যায় রাজধানীর খিলক্ষেত থানায় ২০১৮ সালের সড়ক পরিবহন আইনে মামলাটি করেন মীমের বাবা নূর মোহাম্মদ মামুন।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //