জামিন পেলেন ট্রান্সকমের পাঁচ কর্মকর্তা

রাজধানীর গুলশান থানার ৩ মামলায় ট্রান্সকম গ্রুপের পাঁচ কর্মকর্তার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার চীফ মেট্রোপলিটন আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট বেগম শান্তা আক্তার জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দেন।

জামিনপ্রাপ্তরা হলেন- প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক (করপোরেট অ্যাফেয়ার্স-আইন) মো. ফখরুজ্জামান ভূঁইয়া, পরিচালক (করপোরেট ফাইন্যান্স) কামরুল হাসান, পরিচালক (করপোরেট ফাইন্যান্স) আবদুল্লাহ আল মামুন, সহকারী কোম্পানি সচিব মোহাম্মদ মোসাদ্দেক ও ব্যবস্থাপক (কোম্পানি সেক্রেটারি) আবু ইউসূফ মো. সিদ্দিক।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশান এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

আজ তাদের আদালতে হাজির করে আসামি আব্দুল্লাহ আল মামুনের পাঁচদিন ও অন্য চারআসামির ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। আসামিপক্ষে ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান মামুনসহ কয়েকজন আইনজীবী রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিন আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন নাকচ করেন। একই সঙ্গে আদালত তাদের প্রত্যেককে পুলিশ প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আগপর্যন্ত তিন হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন মঞ্জুর করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ট্রান্সকম গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত লতিফুর রহমানের মেয়ে শাযরেহ হক বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার গুলশান থানায় পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেন। যেখানে প্রয়াত লতিফুর রহমানের স্ত্রী ও ট্রান্সকম গ্রুপের বর্তমান চেয়ারম্যান শাহনাজ রহমান, লতিফুর রহমানের মেয়ে ও গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সিমিন রহমান এবং সিমিন রহমানের ছেলে ও ট্রান্সকম গ্রুপের হেড অব ট্রান্সফরমেশন যারেফ আয়াত হোসেনসহ ১৫ জনকে আসামি করা হয়। মামলায় কোম্পানির শেয়ার ও অর্থসম্পদ নিয়ে প্রতারণামূলক বিশ্বাস ভঙ্গ এবং জালিয়াতির অভিযোগ আনা হয়েছে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //