নারী-পুরুষের মধ্যকার মজার কিছু পার্থক্য

সৃষ্টির শুরু থেকে নারী-পুরুষের গঠন আলাদা। তবে তাদের উভয়েরই মন-মানসিকতা নির্ভর করে তার বেড়ে উঠা পরিবেশের ওপর। প্রাচীন যুগে নারী-পুরুষের মধ্যে বেশ ভেদাভেদ করা হলেও, বর্তমানে তেমনিই নয়। এখন সচরাচর নারী-পুরুষ সমাস সমানই ধরা হয়। কিন্তু এতো কিছুর পরও নারী-পুরুষের মধ্যে আচরণগত কিছু পার্থক্য থেকেই যায়। এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

নারী-পুরুষের মধ্যে এমিই কিছু মজার পার্থক্য জেনে নেয়া যাক-

১. পুরুষদের মস্তিষ্ক স্বাভাবিকভাবেই অঙ্ক কষতে পছন্দ করে। বিপরীতে মহিলারা পছন্দ করেন ভাষা।

২. মেয়েরা ঝগড়া করলেও, সচরাচর মারামারি করে না। কিন্তু পুরুষরা এ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম।

৩. পুরুষরা সিদ্ধান্ত নিতে কখনো আবেগকে প্রাধান্য দেয় না। কিন্তু মহিলারা আনুষঙ্গিক নানান কিছু ভেবে তারপর সিদ্ধান্ত নেয়।

৪. সাধারণত মজার কিছু হলেই পুরুষরা উচ্চস্বরে হাসেন, কিন্তু মহিলারা তাদের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে হাসেন।

৫. পুরুষদের কাছে তাদের গাড়িই সবচেয়ে প্রিয়; একারণে পুরুষরা তা পরিষ্কার রাখতে পছন্দ করে। মহিলারা মনে করে গাড়ি পরিষ্কার করা আর জুতোর তলা পরিষ্কার একই ব্যাপার।

৬. মহিলারা পুরুষদের থেকে বেশি আবেগজনিত ঘটনাগুলো মনে রাখেন।

৭. চিন্তা-ভাবনার ওপর প্রেশার পড়লে পুরুষদের শারীরিক চাহিদা বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে নারীদের ব্যাপার একদমই ভিন্ন।

৮. মানুষ বিচার করার ক্ষেত্রে পুরুষের থেকে তুলনামূলক অনেকটাই নারীরাই বেশি করে।

৯. পুরুষরা সাধারণত নারীর রূপ-সৌন্দর্য দেখে আকৃষ্ট হয়ে থাকে। বিপরীতে নারীদের এসব আকর্ষণ করে না।

১০. পুরুষরা কোনো সমস্যার বিষয় কারো সঙ্গে আলোচনা ছাড়াই সমাধান করার চেষ্টা করে কিন্তু নারীরা আলোচনা করতে না পারলে সমস্যা নিয়ে আরো বেশি সমস্যায় ভোগেন।


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh