সঠিক খাবার খাচ্ছেন তো?

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক সময় সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগি। আমাদের জন্য উপকারী এবং অপকারী দুই ধরনের খাবারেরই অভাব নেই। রুটি, ভাত, না কি ফল? শস্য না কি তরল? মসলাদার খাবার না কি সালাদ? কোনটি বেশি স্বাস্থ্যকর, কোনটি খেলে বেশি উপকার পাওয়া যাবে, তা নিয়ে আমাদের নানা চিন্তা। 

খাবারের তালিকা থেকে স্বাস্থ্যকর খাবার বাদ পড়লে পুষ্টির ঘাটতিতে ভুগতে শুরু করবেন। খাবারের তালিকা তৈরির সময় যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত 

সালাদ সুস্বাদু করে তুলুন

বেশিরভাগের কাছেই সালাদ মানে একটি পাত্রে কিছু পাতা, টমেটো, শসা যোগ করে ওপরে কিছুটা লবণ এবং লেবুর রস ছিটিয়ে দেওয়া। কেউ যদি এই খাবার নিয়মিত খেতে থাকেন তবে একটা সময় বিরক্তি আসবেই। তাই পরিচিত রেসিপি পাল্টে সালাদ আরও সুস্বাদু ও পুষ্টিকর করে তুলতে পারেন। এতে ভাজা শাক-সবজি, পাস্তা, ছোলা, মুরগির মাংস, চিংড়ি বা সেদ্ধ ডিম মেশাতে পারেন। এতে সালাদ আপনার কাছে আরও বেশি উপভোগ্য হয়ে উঠবে।

মসলা বাদ নয়

স্বাস্থ্যকর খাবার বলতে অনেকে বোঝেন মসলার কম ব্যবহার বা খাবার থেকে অনেক ধরনের মসলা বাদ দেওয়া। তবে আমাদের দেশে যেসব মসলা পাওয়া যায় তা আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী। তবে এর পরিমাণ বুঝে খেতে হবে। এসব মসলা খাবারকে স্বাস্থ্যকর করার পাশাপাশি আরও বেশি সুস্বাদু করে তুলবে।

ফল রাখুন তালিকায়

অনেকে ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে কলা, আম, লিচু কিংবা জাতীয় ফল থেকে দূরে থাকেন। তবে এটি একদমই ঠিক নয়। বরং মৌসুমি এই ফলগুলোতে থাকে বিভিন্ন উপকারী উপাদান। এতে থাকে প্রাকৃতিক শর্করা। এসব ফল দিয়ে নানা ধরনের মিষ্টি খাবার বা ডেজার্টও তৈরি করে খাওয়া যায়। তাই কলাসহ বিভিন্ন মৌসুমি ফল রাখুন খাবারের তালিকায়।

ভিন্নতা আনুন রান্নায়

একই ধরনের রান্না খেতে প্রতিদিন ভালো না-ও লাগতে পারে। তাই রান্নায় নতুনত্ব আনার চেষ্টা করুন। একই উপকরণ দিয়ে তৈরি করা যায় নানা ধরনের খাবার। সেগুলো শিখে নিয়ে নতুন নতুন খাবার তৈরির চেষ্টা করতে পারেন। ভাজাভুজির বদলে গ্রিল বা বেক করা খাবার খেতে পারেন। এগুলো বেশি স্বাস্থ্যকর। 

উপভোগ করুন

খাবার খেতে হয় বলে খাওয়া, এভাবে খাবেন না। বরং আপনার খাবারকে উপভোগ করতে শিখুন। যত্ন করে রাঁধুন। রান্নার শেষে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। এতে মন খুশি থাকবে। আপনি যদি খাবার উপভোগ না করেন তবে তা শরীরে সঠিকভাবে পুষ্টি পৌঁছাতে ব্যর্থ হবে।

খাবার খাওয়ার সময় যে কোনো গ্যাজেট থেকে দূরে রাখতে পারেন নিজেকে। মনোযোগের পুরোটাই হওয়া উচিত খাবারের প্রতি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //