শীতে হলুদ খাবেন কেন?

হলুদকে অলৌকিক ভেষজ বলা হয়ে থাকে। হলুদ আমাদের কাছে অত্যন্ত পরিচিত একটা মশলা, প্রতিদিন রান্নায় হলুদ না দিলে রান্নাটাই যেন কেমন অসম্পূর্ণ মনে হয়। তবে শুধু রান্নার কাজেই নয়, হলুদের আরো অনেক গুণই আছে, যার বেশির ভাগই আমাদের কাছে অজানা।

হলুদের বেশ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে এবং এটি প্রাকৃতিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিকারী হিসাবে কাজ করে।

শারীরিক ব্যাধি দূরে রাখে

হলুদ একটি ভেষজ উপাদান যা সারা বিশ্বেই পাওয়া যায়। এটি শীতকালীন সাইনাস, জয়েন্টে ব্যথা, বদহজম, সর্দি এবং কাশি থেকে মুক্তি দিতে পারে। তাত্ক্ষণিক উপশমের জন্য, দুধ এবং চায়ের মতো পানীয়তেও এক চিমটি হলুদ যোগ করতে পারেন। প্রতিদিন হলুদ খেলে তা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করতে পারে।

টক্সিন দূর করে

হলুদ একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরকে ভেতর থেকে উপকার করে। কঠোর শীত থেকে বাঁচতে আমাদের অবশ্যই চর্বি এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। এসময় আমরা এমন সব গরম পানীয়ও গ্রহণ করি যা প্রশান্তিদায়ক হলেও পরিপাকতন্ত্রকে বিপর্যস্ত করতে পারে। আপনি যদি খাবারে হলুদ যোগ করেন তবে তা স্বাদ বৃদ্ধির পাশাপাশি হজমে সাহায্য করে। হলুদযুক্ত খাবার খেলে তা আপনার শরীরকে টক্সিন থেকে মুক্তি দেয়। সেইসঙ্গে আপনার ত্বকে স্বাস্থ্যকর আভা দেয়।

মৌসুমী ফ্লু দূরে রাখে

শীতের শুরুতে মৌসুমী ফ্লুর সূচনা হয়। এই মৌসুমে আমাদের দেশের বেশিরভাগ পরিবারে হলুদ দুধ হলো প্রাকৃতিক ওষুধ। অনেক গর্ভবতী নারীও হালকা ফ্লুতে হলুদ দুধ পান করে থাকেন। হলুদ ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ দূর করতে সাহায্য করে এবং গলা ব্যথা থেকে মুক্তি দেয়।

হলুদ সারা বছরই পাওয়া যায়। এটি শুধুমাত্র একটি ভালো মসলাই নয় বরং একটি নিরাময়কারীও। এটি ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে এবং আলঝেইমারের চিকিত্সার জন্যও পরিচিত।

বিষয় : হলুদ শীত

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //