ইরাকে কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ২৩ রোগীর মৃত্যু

বাগদাদের ইবনে খাতিব হাসপাতালের অক্সিজেন ট্যাঙ্ক বিস্ফোরিত হয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। ছবি: বিবিসি

বাগদাদের ইবনে খাতিব হাসপাতালের অক্সিজেন ট্যাঙ্ক বিস্ফোরিত হয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। ছবি: বিবিসি

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি হাসপাতালে আগুন লেগে কমপক্ষে ২৩ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হতো।

ইরাকের স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার (২৪ এপ্রিল) রাতে ইবনে খাতিব হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে এবং এতে আরো অনেকেই আহত হয়েছেন।

অক্সিজেন ট্যাঙ্ক বিস্ফোরিত হয়ে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় বলে গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়। ইরাকের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগ জানায়, আজ রবিবার (২৫ এপ্রিল) ভোর নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, দমকলকর্মীরা আগুন নেভাতে হিমশিম খাচ্ছেন। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন অনেকে।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মু্স্তাফা আল খাদিমি এই ঘটনাকে ‘মর্মান্তিক দুর্ঘটনা’ বলে উল্লেখ করে এর কারণ জানতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

ইরাকের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল খাদিম বোহান রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আইএনএকে বলেন, হাসপাতালটির নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) আগুনের সূত্রপাত হয়। এ পর্যন্ত ১২০ জন রোগীর মধ্যে ৯০ জন রোগী ও স্বজনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে হাসপাতালের এক সূত্র জানায়, নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে প্রায় ৩০ জন রোগী ছিলেন। কোভিডে গুরুতর আক্রান্তদের জন্য ওই ইউনিটটি সংরক্ষিত ছিল।

আহত ও অন্য রোগী যারা আহত হননি তাদেরকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালগুলোতে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ইরাকের হাসপাতালগুলো করোনাভাইরাস মহামারির ধকল সামলে উঠতে হিমশিম খাচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে যুদ্ধ, অবহেলা ও দুর্নীতির কারণে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা দুর্বল থাকার কারণে এমনটা হয়েছে।

ইরাকে গত ফেব্রুয়ারি থেকে কভিড সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে চলেছে এবং চলতি সপ্তাহে ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। মহামারি শুরুর পর থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশটিতে ১০ লাখ ২৫ হাজার ২৮৮ জন আক্রান্ত এবং ১৫ হাজার ২১৭ জন মারা গেছে বলে জানিয়েছে।

দেশটিতে গত মাসে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করা হয়েছে এবং এরইমধ্যে ৬ লাখ ৫০ হাজার ডোজ টিকা তারা পেয়েছে। এর মধ্যে বেশিরভাগই টিকাদানের বৈশ্বিক কর্মসূচি কোভ্যাক্স থেকে পাওয়া। -বিবিসি

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh