জাতিসংঘে ভোটাধিকার হারালো ইরান

ইরান, ভেনিজুয়েলা ও সুদানসহ আটটি দেশ বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করায় জাতিসংঘে তাদের ভোটাধিকার হারিয়েছে। যতক্ষণ পর্যন্ত তারা চাঁদা না দিচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত জাতিসংঘের কোনও বিষয়েই তারা ভোট দিতে পারবে না।

সাধারণ পরিষদের এক প্রতিবেদনে গত মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, মোট ১১টি দেশ তাদের চাঁদা পরিশোধের ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েছে। 

ইরান এজন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে। মার্কিন নিষেধাজ্ঞর কারণে ইরানে অর্থসংকট থাকা সত্ত্বেও জাতিসংঘকে প্রদেয় অর্থ প্রস্তুত রয়েছে। কিন্তু ওই নিষেধাজ্ঞার কারণেই ব্যাংকিং লেনদেন সম্ভব না হওয়ায় প্রস্তুতকৃত অর্থ পরিশোধ করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন  ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে। 

ইরান, সুদান, ভেনেজুয়েলা ছাড়াও এই তালিকায় আছে অ্যান্টিগা, কঙ্গো, গিনি, পাপুয়া নিউগিনির মতো দেশ। 

বুধবার জাতিসংঘ জানিয়েছে, ভোটাধিকার ফেরত পেতে গেলে ইরানকে দিতে হবে ১৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ভেনেজুয়েলার বাকি ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সুদানকে দিতে হবে তিন লাখ মার্কিন ডলার। বস্তুত, দুই বছরের বেশি সদস্যচাঁদা বাকি থাকলে ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়। তবে বহুক্ষেত্রেই ছাড় দেওয়া হয়।

২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে ইরানের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু জুন মাসে তা ফিরিয়ে দেওয়া হয়। ইরান জানিয়েছিল, সময়মতো তারা ধার শোধ করে দেবে।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, জাতিসংঘের সদস্য চাঁদা তারা নিয়মিত দিতে চান। কখনোই বাকি রাখতে চান না। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র যেভাবে তাদের উপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে রেখেছে, তাতে তাদের পক্ষে ওই অর্থ জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। যুক্তরাষ্ট্র জানে নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরান চাঁদা দিতে পারছে না। ইচ্ছা করেই তাদের উপর চাপ বাড়ানো হচ্ছে।

কিন্তু জাতিসংঘ জানিয়েছে, চাঁদা দিতে না পারলে এবার ইরানের ভোটাধিকার ফেরত দেওয়া হবে না।

খাতিবজাদে বলেন, জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদেশ হিসেবে ইরান সব সময় এই সংস্থাকে নির্ধারিত অর্থ সময়মতো পরিশোধ করে এসেছে। এমনকি জাতিসংঘের অধীনস্ত অন্যান্য সংস্থার কোনো অর্থও কখনো বকেয়া পড়েনি।

জাতিসংঘের কাছে ওই অর্থ পৌঁছে দেয়ার জন্য ইরান প্রয়োজনীয় স্থানগুলোতে দেনদরবার চালাচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। -এএফপি, ডয়চে ভেলে ও পার্সটুডে

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //