কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার বিচার শুরু

ছবি: বিবিসি

ছবি: বিবিসি

যুক্তরাষ্ট্রে গত বছর কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার অভিযোগে মিনিয়াপোলিস শহরে এক শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারের বিচার শুরু হয়েছে।

পুলিশের কর্মকর্তা ডেরেক চাওভিন হাঁটু দিয়ে ফ্লয়েডের ঘাড় চেপে ৯ মিনিট ধরে বসে আছেন- গত বছর এমন একটি ভিডিও যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা বিশ্বে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছিল।

এই ঘটনায় যে চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়- ৪৫ বছর বয়স্ক ডেরেক তাদের মধ্যে প্রধান আসামি। ডেরেক তার বিরুদ্ধে আনা হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। দোষী সাব্যস্ত হলে এই মামলায় তার ৪০ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।

তাকে ইতিমধ্যে পুলিশ বাহিনী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বিচার শুরু হওয়ার আগে মিনিয়াপোলিস শহরে ফ্লয়েডের পরিবারের সদস্যরা এক প্রার্থনায় অংশ নেন। তার ভাই টেরেন্স ফ্লয়েড বলেন, আমরা ঈশ্বরপ্রেমী মানুষ, আমরা গির্জায় যাওয়া মানুষ। কাজেই আমরা শেষপর্যন্ত এই কথাটাই বলতে চাই- আমরা কর্তৃপক্ষের কাছে ন্যায়বিচার চাই।

ফ্লয়েডের আরেক ভাই ফিলোনাইস ফ্লয়েড বলেন, আমার বুকে একটা বিরাট ক্ষত তৈরি হয়েছে। এই ক্ষত আমি সারাতে পারবো না.. এজন্যে দরকার জর্জ ফ্লয়েডের জন্য ন্যায়বিচার। এই মামলায় অপরাধীদের দোষী সাব্যস্ত করতে হবে।

এই বিচার টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে। তবে যে ১৪ জন জুরি বিচারে অংশ নিচ্ছেন, তাদের পরিচয় গোপন রাখা হবে।

পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক যেভাবে হাঁটু দিয়ে ফ্লয়েডকে মাটিতে চেপে ধরে রেখেছিলেন, সেই ভিডিও আদালতে দেখানো হয়। যখন এই ভিডিওটি দেখানো হচ্ছিল, তখন জুরিরা হাতকড়া পরা অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকা ফ্লয়েডের গোঙানি শুনতে পান। তার শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিল ও পাশে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজন ডেরেককে বার বার অনুরোধ করছিলেন তাকে ছেড়ে দেয়ার জন্য।

বাদীপক্ষের কৌসুলি জেরি ব্লাকওয়েল বলেন, নয় মিনিট ও ২৯ সেকেণ্ড। এত লম্বা সময় ধরেই এই ঘটনা ঘটেছিল।

আদালতে যখন ভিডিওটি দেখানো হয় তখন ডেরেক গ্রে স্যুট ও নীল টাই পরে আসামিপক্ষের টেবিলে বসে ছিলেন। তাকে একটি হলুদ প্যাডে নোটও নিতে দেখা যাচ্ছিল।

কৌসুলি জেরি তার যুক্তি-তর্ক শুরু করেন এই বলে যে, ৪৪ বছর বয়সী ডেরেক চাওভিন পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে তার ব্যাজের সম্মান রক্ষা করেননি, কারণ তিনি জর্জ ফ্লয়েডের ওপর মাত্রাতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগ করেছেন, অযৌক্তিক বল প্রয়োগ করেছেন। তিনি তার হাঁটু দিয়ে জর্জ ফ্লয়েডের ঘাড় ও পিঠ চেপে ধরে রেখেছিলেন, তার শেষ নিঃশ্বাসটি বেরিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত।

ফ্লয়েডের হত্যার বিচারকে যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদ, বিভিন্ন বর্ণের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক ও পুলিশের জবাবদিহিতার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে যখন কোন অভিযোগ আনা হয়, তখন তাদের সাজা পাওয়ার ঘটনা খুবই বিরল।

১৪ জন জুরির সবাই যদি সর্বসম্মত সিদ্ধান্তে আসেন, কেবল তবেই ডেরেককে দোষী বলে রায় দেয়া যাবে। জুরিদের মধ্যে ছয়জন শ্বেতাঙ্গ নারী, তিনজন কৃষ্ণাঙ্গ পুরুষ, দুজন শ্বেতাঙ্গ পুরুষ, দুজন মিশ্র বর্ণের নারী ও একজন কৃষ্ণাঙ্গ নারী। -বিবিসি

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh