আন্তর্জাতিক বিড়াল দিবস আজ

আন্তর্জাতিক বিড়াল দিবস আজ সোমবার (৮ আগস্ট)। প্রতিবছর এই দিনটি বিড়ালদের সুরক্ষা এবং বিড়াল সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে পালন করা হয়। 

বিড়াল সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রাণী কি না, এই নিয়ে তর্ক হতে পারে। তবে কম-বেশি সবাই বিড়ালের চলনবলন বেশ পছন্দ করে। চলন বলতে ‘ক্যাটওয়াক’ আর বলন মানে ‘মিঁয়াও’ শব্দ। আদুরে এই প্রাণীটির বিশেষ দিন আজ। 

২০০২ সালে সর্বপ্রথম ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যানিম্যাল ওয়েলফেয়ার (IFAW) সংস্থার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক বিড়াল দিবস পালিত হয়। এরপর থেকে প্রতিবছর বিশ্বব্যাপী দিবসটি পালিত হয়ে আসছে। এই দিনকে অনেকে ‘পোষাপ্রাণী’ দিবসও বলে থাকেন। কারণ পোষাপ্রাণী হিসেবে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পালিত হয় বিড়াল। 

পৃথিবীতে ৫০০ মিলিয়নেরও বেশি পোষা বিড়ালের সংখ্যা রয়েছে। একদল বিড়ালকে বলা হয় ‘ক্লাউডার’, ছেলে বিড়ালকে বলা হয় ‘টম’, মেয়ে বিড়ালকে বলা হয় ‘মলি’ অথবা ‘কুইন’ আর বিড়ালছানাদের বলা হয় ‘কিটেন’। এরা দিনের মধ্যে প্রায় ১৩ থেকে ১৪ ঘণ্টাই ঘুমিয়ে কাটায়। এই লম্বা ঘুম দিয়ে তারা নিজেদের শক্তি সংরক্ষণ করে। 

বিড়ালের শরীর আর দাঁত ছোট ছোট প্রাণী শিকার করার জন্য বিশেষভাবে উপযোগী। সাধারণত পোষা বিড়ালের ওজন হয় চার থেকে পাঁচ কিলোগ্রাম। তবে ব্যতিক্রম তো আছেই। সবচেয়ে ওজনদার পোষা বিড়ালের ওজন প্রায় ২২ কিলোগ্রাম। বিড়াল খুবই ধূর্ত এবং নিখুঁত শিকারি। 

এদের ঘ্রাণ, স্মৃতি ও শ্রবণশক্তি খুবই ভালো। একজন সাধারণ মানুষ যেখানে পাঁচ মিলিয়ন গন্ধ চিনে নিতে পারে, সেখানে একটি বিড়াল পারে ১৯ মিলিয়ন পর্যন্ত। বিড়ালের কানে আছে এক ধরনের আয়রন, যা তাকে চৌম্বক নির্দেশনা পেতে সহায়তা করে। পথ চিনে নেওয়ার কাজে এরা ঘ্রাণ, স্মৃতি ও দিকনির্দেশনার জন্য পৃথিবীর চৌম্বকক্ষেত্র ব্যবহার করে। একটি বিড়াল গড়ে ১২ থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারে।

বিড়াল খুবই আদুরে আর আহ্লাদি ধরনের প্রাণী। শান্তশিষ্ট স্বভাব হলেও এর চেহারা ছোটখাটো বাঘের মতো, একই গোত্রের কি না! তাই বিড়ালকে বলা হয় বাঘের মাসি!

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //