দ্বিতীয় সন্তান নেয়ার আগে যে চারটি বিষয় ভাববেন

একজন মায়ের দ্বিতীয়বার সন্তান নিতে হলে তার অন্তত একবছর সময় নেয়া উচিত। এ সময় নেয়া হলে সেটি মা ও শিশুর স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইনে এ বিষয়ে ১৮ মাস বিরতি নেয়ার পরামর্শ দেয়া আছে।

গবেষকরা বলছেন, সাধারণত দুইবার গর্ভধারণের মধ্যে সময়ের ব্যবধান কম হলে তা অপরিপক্ব শিশু কিংবা আকারে ছোট শিশু জন্ম দেয়ার ঝুঁকি তৈরি করে। এক বছরের কম সময়ের মধ্যে গর্ভধারণ করলে সেটি যে কোনো বয়সের নারীর জন্যই ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে। তাই দ্বিতীয় সন্তান নেয়ার আগে এই বিষয়টির পাশাপাশি আরো চারটি বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখবেন। 

শারীরিক ও মানসিক প্রস্তুতি

দ্বিতীয় সন্তান নেয়ার আগে ভালো করে ভেবে নিন, সন্তান নেওয়ার জন্য আপনি শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রস্তুত কিনা। কারণ আপনার একটি সন্তান রয়েছে, তার জন্য আপনার সময় ও মনোযোগের প্রয়োজন। আরও একটি সন্তানকে প্রয়োজনীয় সময় ও মনোযোগ দেওয়া আপনার পক্ষে সম্ভব হবে কিনা, সেটা আগে ভেবে নিন। শারীরিকভাবে আপনি তৈরি কিনা, সেটাও দেখে নিতে হবে। কারণ প্রথমবার মা হওয়ার পর আপনার শরীরে নানারকম পরিবর্তন ঘটে গেছে। তাই দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম দেওয়ার ঝক্কি আপনি সামলে উঠতে পারবেন তো? 

ক্যারিয়ারের কথা ভেবে নিন

আপনি যদি কর্মরত থাকেন তাহলে প্রথম সন্তানের জন্মের সময় আপনি কর্মস্থল থেকে একবার ব্রেক নিয়েছেন। আবারও সেই লম্বা ছুটি আপনার ক্যারিয়ারে বাধা সৃষ্টি করবে না তো? অনেক নারীই দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর সফলভাবে কর্মজগতে ফিরে যান। কিন্তু দুটি সন্তানের ঝক্কি সামলে অনেকেই সেটা পারেন না। আপনি কি সিদ্ধান্ত নেবেন তা আপনার ব্যক্তিগত বিষয়। কিন্তু যা করবেন তা ভালো করে ভেবে করবেন। পরে যেন এই নিয়ে আপনাকে পস্তাতে না হয়।

আর্থিকভাবে তৈরি আছেন তো?

সন্তানের জন্ম দেয়া থেকে তাকে বড় করে তোলা, প্রচুর খরচের ব্যাপার। সন্তানের পড়াশোনা ও অন্যান্য বিষয়ে একটি সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারও আজকের দিনে প্রচুর টাকা খরচ করে। দুটি সন্তান মানে এই টাকার পরিমাণ দ্বিগুণেরও বেশি হয়ে যাওয়া। কারণ দ্বিতীয় সন্তানটি যতদিনে বড় হবে, ততদিনে সবকিছুর দাম আরও বেড়ে যাবে। দুটি সন্তান নিলেও আপনি এই লাইফস্টাইলেই থাকতে পারবেন কিনা, সেটা ভেবে নিন।

প্রথম সন্তানকে প্রস্তুত করুন

আপনি যদি দ্বিতীয় সন্তান নিতে চান, তাহলে আগে থেকে আপনার প্রথম সন্তানকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করে তুলুন। শিগগিরই যে তার একটি ভাই বা বোন আসছে, সেই বিষয়টি তাকে জানান। ভাই বা বোন এলে তাকে যে নিজের জিনিসপত্র ও বাবা-মাকেও তার সঙ্গে ভাগ করে নিতে হবে, সেটা তাকে বোঝান। এতদিন পরিবারের যাবতীয় মনোযোগ সে একাই পেয়ে এসেছে। হঠাৎ করে দ্বিতীয় সন্তানের আবির্ভাবের ফলে সে নিজেকে গুরুত্বহীন বলে ভাবতে পারে। তার মনে যাতে ছোট ভাই বা বোনের প্রতি কোনোরকম ঈর্ষার জন্ম না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সূত্র: বিবিসি

বিষয় : সন্তান

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //