‘তারেক জিয়া বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে’

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মির্জা আজম এমপি বলেছেন, ‘একসময় জিয়া-মোশতাক যে ষড়যন্ত্রের সূচনা করেছিল, সেই ষড়যন্ত্র থেমে নেই। বর্তমানে বেগম খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমান কিছু যুদ্ধাপরাধী রাজাকারের ছেলেদের দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। কিছু নামধারী মোল্লা মনগড়া ফতোয়া দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে বাধা দিচ্ছে।’

শনিবার (২৮ নভেম্বর) জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার বালিজুড়ী এফএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত উপজেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক যুবকন্ঠ মির্জা আজম আরো বলেন, ‘সৌদি আরব ও পাকিস্তানসহ অনেক মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে। অথচ সেই সব দেশে কোনো সংগ্রাম নাই। বাংলাদেশে ভাস্কর্য নিয়ে যে ষড়যন্ত্র চলছে তা মূলত তারেক জিয়ারই চক্রান্ত।’

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। তিনি বলেন, ‘১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে তার প্রয়াত পিতা শেখ ফজলুল হক মনি যুবলীগের হাল ধরেছিলেন। তাঁর হাতে গড়া সংগঠন বিগত সময়ে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছিলেন নানক ও মির্জা আজম। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে সারাদেশে শক্তিশালী অবস্থান তৈরী করেছে যুবলীগ। যুবলীগের নেতাকর্মীদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।’

সম্মেলনে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. ফরিদুল ইসলাম সভাপতিত্ব করেন। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, সহ-সভাপতি আশরাফ হোসেন তরফদার, সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-আমিন চান, জেলা যুবলীগের সভাপতি রাজন সাহা রাজু, সাধারণ সম্পাদক ফারহান আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু জীবন কৃষ্ণ সাহা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান বেলাল, জামালপুর পৌরসভার মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, মাদারগঞ্জের মেয়র মির্জা গোলাম কিবরিয়া কবির, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সাবিনা ইয়াসমিন, অধ্যক্ষ গোলাম রব্বানি প্রমুখ।

উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে সাবেক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. ফরিদুল ইসলামকে সভাপতি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পুনঃনির্বাচিত করা হয়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh