ঈদের পর সরকারের সাথে পাঞ্জা: মান্না

ঈদের পর সরকারের সাথে পাঞ্জা লড়ার ঘোষণা দিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। দরিদ্রদের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাড়ে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দের সমালোচনা করে তিনি এই ঘোষণা দেন।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছে দেয়ার দাবিতে মান্না বক্তব্য রাখেন।

দরিদ্র পরিবারের জন্য ‘মাত্র’ ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে জনগণের কাছে দুঃখ প্রকাশের আহ্বান জানান।

৪৫ লাখ পরিবারের কাছে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানোর স্পষ্ট রূপরেখা জনগণের সামনে উন্মোচনের দাবি জানিয়ে মান্না বলেন, ‘দাবি না মানলে ঈদের পর সরকারের সাথে পাঞ্জা লড়া হবে।’

গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘বাংলাদেশে লকডাউন দিতে হলে মানুষের খাদ্য নিশ্চিত করে দিতে হবে। সেটা না করে লকডাউন দেয়া প্রতারণা। তথাকথিত লকডাউন জনগণের দুর্ভোগ সৃষ্টি করছে। গার্মেন্টস শ্রমিকদের কাজ করতে হচ্ছে। কিন্তু তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা হচ্ছে না।’

আলোকচিত্রী শহিদুল আলম কবি, সাহিত্যিক, লেখকসহ শিল্পমনস্ক ব্যক্তিদের ‘নীরবতা’ ভেঙে সরব হবার আহ্বান জানান। তিনি দরিদ্র পরিবারের জন্য ১০ কোটি টাকার বরাদ্দকে হাস্যকর দাবি করেন।

আগের দিন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম গণমাধ্যমকে জানান, করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে চলমান লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত দরিদ্র, দুঃস্থ, ভাসমান এবং অসচ্ছ্বল মানুষের সহায়তায় ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী ও রেহনুমা আহমেদ, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য দিদারুল ভূইয়াও কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh