জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পায়তারা বন্ধের আহ্বান ন্যাপের

বাংলাদেশ ন্যাপ

বাংলাদেশ ন্যাপ

করোনা ধাক্কা সামাল দিতে গিয়ে নিম্নবিত্ত-মধ্যবিত্ত মানুষের জীবন চরম সংকটে পড়েছে। আর এমনই অবস্থায় সরকারের ব্যর্থতায় নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ মানুষের জীবনে কষ্ট আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। অন্যদিকে সরকারের জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির চিন্তা জনগণকে আরো চাপে ফেলবে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ।

শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির লাগাম কিছুতেই টেনে ধরতে পারছে না সরকার। অন্যদিকে সরকারের খাদ্যমন্ত্রী জনগণকে ভাত কম খাবার উপদেশ দিয়ে জনগণের সাথে তামাশা করছেন। যা অত্যন্ত হাস্যকর।  নিত্যপণ্য চাল, ডাল, তেল, চিনি, আটা-ময়দা, পেঁয়াজ ও আলুর মূল্য প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। একইসঙ্গে শীতকালীন সবজি বাজারে উঠলেও সেখানেও স্বস্তি নেই।

নেতৃদ্বয় বলেন, ফলে নিত্যদিনের বাজার খরচ মেটাতে দিশাহারা নিম্নমধ্যবিত্তরা। আয়-ব্যয়ের হিসাব মেলাতে পারছে না কিছুতেই। জীবন চালাতে ধার-কর্য করছে প্রতিনিয়ত। এতে করে হিমশিম খেতে হচ্ছে নিম্নবিত্তদের।  

এমন অবস্থায় তুলনামূলক কম দাম হওয়ায় বাংলাদেশ থেকে তেল পাচারের শঙ্কার অজুহাতে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির সরকারী চিন্তা জনবিরোধি। এমনিতেই নিত্যপণ্য অন্যান্য পণ্য উর্ধ্বমূল্যে কিনতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে এমন অবস্থায় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি হলে জনজীবনে মারাত্মক চাপ পড়বে। এমনটি যদি হয় তাহলে মড়ার ওপর অনেকটা খাড়ার ঘা পড়বে।

নেতৃদ্বয় পাচার এবং বিশ্ব বাজারের সাথে সমন্বয়ের অজুহাতে দেশে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পায়তারা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, মহামারি করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে টানা লকডাউনে কাজ হারিয়েছে অসংখ্য মানুষ। বেশির ভাগ কর্মজীবীর আয় কমেছে। নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির প্রায় সব মানুষেরই নাভিশ্বাস উঠেছে জীবন চালাতে। সংসার চালাতে না পেরে অনেকেই ঢাকা ছেড়েছেন। তাই নিত্যপণ্যের লাগাম টেনে না ধরতে পারলে নিম্ন ও মধ্যবিত্তদের জীবন চরম সংকটে পড়বে। এরমধ্যে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধিরমত জনবিরোধী সিদ্ধান্ত গ্রহণ থেকে বিরত থাকতে হবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //