‘ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্যবৃদ্ধি আত্মঘাতী’

সরকারের ব্যর্থতায় নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ মানুষের জীবনে কষ্ট প্রতিনিয়ত অতিষ্ঠ করে তুলছে ঠিক সেই মুহূর্তে ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য লিটারে ১৫ টাকা বৃদ্ধি সরকারের আত্মঘাতী ও জনবিরোধী সিদ্ধান্ত বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ জনস্বার্থ বিরোধী এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির লাগাম টানতে ব্যর্থ সরকার ডিজেল ও কেরোসিন তেলের মূল্যবৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণের বিপক্ষেই অবস্থান গ্রহণ করলো। সরকারের মন্ত্রীদের কর্মকাণ্ড ও অবস্থান দেখলে মনে হয়, তারা এদেশের জনগণ নয়, লুটেরাগোষ্টির স্বার্থ রক্ষা করতেই ব্যস্ত। ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্যবৃদ্ধি সরকারী সিদ্ধান্ত জনবিরোধী। এমনিতেই নিত্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের পণ্য উর্ধ্বমূল্যে কিনতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। এমন অবস্থায় এই মূল্যবৃদ্ধির ফলে জনজীবনে মারাত্মক চাপ পড়বে। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত অনেকটা ‘‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’’ এর মত।

নেতৃদ্বয় ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়ে বলেন, মহামারি করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে টানা লকডাউনে কাজ হারিয়েছে অসংখ্য মানুষ। বেশির ভাগ কর্মজীবীর আয় কমেছে। নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির প্রায় সব মানুষেরই নাভিশ্বাস উঠেছে জীবন চালাতে। সংসার চালাতে না পেরে অনেকেই ঢাকা ছেড়েছেন। এরমধ্যে তেলের মূল্যবৃদ্ধিরমত জনবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিল করে লুটেরা গোষ্ঠী নয় সাধারণ জনগণের স্বার্থ রক্ষায় সরকারের অবস্থান গ্রহণ করা উচিত। সরকারের মনে রাখা উচিত যে, তেলের মূল্যবৃদ্ধির এই সিদ্ধান্তের নেতিবাচক প্রভাব পড়বে জনজীবনে। নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির চাপে উদ্বিগ্ন জনগণের জন্য এ মূল্য বৃদ্ধি অভিশাপ হয়ে দেখা দেবে।

তারা বলেন, প্রায়ই দেখা যায় বিভিন্ন এলাকায় শীতকালীন ফসলসহ ঋতুকালীন বিভিন্ন ধরনের পণ্যের কেজি এক টাকা দরে বিক্রি হয়। অনেক সময় ক্রেতার অভাবে অনেক পণ্য মাঠেই পড়ে থাকে এবং নষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু ঠিক একই সময় দেখা যায় রাজধানীসহ বিভিন্ন শহরে সেসব পণ্যের বেশ দাম। দূর গ্রামের পানির দামের এসব পণ্যের নগরে দাম বৃদ্ধির পেছনে চাঁদাবাজি, মধ্যস্বত্বভোগী, সিন্ডিকেট ব্যবসায়সহ আরো যেসব কারণ থাকে তার মধ্যে অন্যতম একটি হলো উচ্চ পরিবহন খরচ। আর উচ্চ পরিবহন খরচের পেছনে রয়েছে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //