আত্মসমর্পণে ইচ্ছুক ২২ আফগান সেনাকে হত্যার ভিডিও প্রকাশ

আত্মসমর্পণে ইচ্ছুক ২২ আফগান কমান্ডোকে হত্যা করেছে তালেবান যোদ্ধারা। ছবি: সিএনএন

আত্মসমর্পণে ইচ্ছুক ২২ আফগান কমান্ডোকে হত্যা করেছে তালেবান যোদ্ধারা। ছবি: সিএনএন

আফগানিস্তানের ফারিয়াব প্রদেশের দাওলাত আবাদ শহরে আত্মসমর্পণ করতে চাওয়া ২২ আফগান সেনাকে গুলি করে হত্যা করেছে তালেবান যোদ্ধারা। গতকাল মঙ্গলবার (১৩ জুন) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে সংযুক্ত এক ভিডিওতে ১৬ জুনের ওই হত্যাকাণ্ডের দৃশ্য উঠে এসেছে। 

ভিডিওতে সব শব্দ স্পষ্ট শোনা গেলেও, যে ক্যামেরায় এটি ধারণ করা হয়েছিল, সেটি স্থির ছিল না। ভিডিওতে ‘কমান্ডোদের আত্মসমর্পণ’ করার কথা বলতে শোনা গেছে। সেসময় গুলির আওয়াজও শোনা গেছে।

সিএনএন এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেছে ও বেশ কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীর সাথে কথা বলেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দৌলত আবাদ শহর দখল নিয়ে তালেবানের সাথে আফগান স্পেশাল ফোর্সের একটি ইউনিট সদস্যদের তুমুল লড়াই হয়। সেসময় সৈন্যদের গোলাবারুদ ফুরিয়ে গেলে তারা আত্মসমর্পণের চেষ্টা করে।

প্রায় ৪৫ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যায়, এক ব্যক্তি স্থানীয় পশতু ভাষায় বলছেন- ‘তাদেরকে গুলি করো না। দোহাই লাগে, তাদেরকে গুলি করো না।’ আত্মসমর্পণের ওই অনুরোধ কাজে লাগেনি। কয়েক মুহূর্ত পরই সেনাদের দিকে ছুটে যায় একের পর এক বুলেট, তারা যখন লুটিয়ে পড়ছিলেন, সেসময় বহুকণ্ঠে ধ্বনিত হচ্ছিল ‘আল্লাহু আকবার’ (আল্লাহ মহান) ।

রেডক্রস ২২ কমান্ডোর মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি সংবাদমাধ্যমের কাছে নিশ্চিত করেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের একজন সিএনএনকে বলেছেন, ‘কমান্ডোদের ঠাণ্ডা মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।’

এক ব্যক্তি বলেছেন, ‘কমান্ডোরা কয়েকটি ট্যাংক নিয়ে শহরে প্রবেশ করে। কিন্তু তাদের গোলাবারুদ ফুরিয়ে গেলে তারা সরকারের পক্ষ থেকে কোনো সহায়তা পায়নি।’

দৌলত আবাদ শহর দখলের লড়াইয়ের তিনদিন পর তালেবান যোদ্ধারা একটি ভিডিও প্রকাশ করে। সেখানে দাবি করা হয়, ‘সিআইএয়ের বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদেরকে নিরস্ত্র ও বন্দি করার কথাও সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে।

তালেবান গোষ্ঠী সিএনএনকে বলেছে, কমান্ডোদের হত্যার ভিডিওটি ভুয়া। এটি আফগান সরকারের অপপ্রচার। তাদের হাতে ২৪ কমান্ডো বন্দি রয়েছেন বলে তারা দাবি করলেও এর কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি।

আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তালেবানের ওই বক্তব্য উড়িয়ে দিয়েছে। কমান্ডোদের তালেবানই হত্যা করেছে বলেও জানিয়েছে তারা।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এ ঘটনাকে ‘যুদ্ধাপরাধ’ হিসেবে অভিহিত করেছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //