সমঅধিকারের দাবিতে কাবুলে নারীদের বিক্ষোভ

তালেবান শরিয়া আইনে দেশ শাসনের ব্রত নিয়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় আসায় আফগান নারীরা আবারও অধিকারবঞ্চিত হচ্ছেন, এমন আশঙ্কার মধ্যে নারী অধিকার ও সামাজিক আন্দোলনের কর্মীরা কাবুলে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের সামনে বিক্ষোভ করলেন।

শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, তালেবান নিয়ন্ত্রিত কাবুলে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের সামনে অল্পসংখ্যক নারী এই বিক্ষোভে অংশ নিয়ে আফগানিস্তানে নারীদের সমানাধিকার ও দেশটির রাজনীতিতে সমান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার দাবি তুলেছেন।

ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও ‌‘উইমেন পলিটিক্যাল পার্টিসিপেশন নেটওয়ার্ক’ এর ব্যানারে একদল নারী আফগানিস্তানের অর্থ মন্ত্রণালয়ের সামনে মিছিল করে ও স্লোগান দেয়। আফগান সরকারের অংশ হওয়ার ও সংবিধানসম্মত আইন তৈরির আহ্বান জানান তারা।

অধিকার আদায়ের দাবিতে হেরাত শহরেও বিক্ষোভ করেছেন আফগান নারীরা। অবশ্য তালেবান যোদ্ধাদের সঙ্গে কয়েকজন নারীর বাগবিতণ্ডা হয়। তখন একটি পুরুষ কণ্ঠে শোনা যায়, ‌‘চলে যাও।’ বিক্ষোভে নারীদের সংখ্যা অপেক্ষাকৃত কম ছিল। কিন্তু তালেবান শাসনের জন্য এটাকে একটি অস্বাভাবিক চ্যালেঞ্জ বলে মনে করা হচ্ছে।

বিক্ষোভকারীরা দেশে নারীদের অধিকার ও গত দুই দশকে নারীর অগ্রগতিকে ধরে রাখার আহ্বান জানিয়েছে তালেবানদের প্রতি। তাদের দাবি, নারীদের কথাও শুনতে হবে, দেশের ভবিষ্যত নির্মাণে তাদেরও সরকারে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে।

বিবিসি, রয়টার্স ও সিএনএন অল্পসংখ্যক হলেও আফগান নারীদের এমন বিক্ষোভকে বিরল বলছে। কারণ কট্টর ইসলামপন্থী তালেবান নারীদের অধিকার দেয়ার নীতিতে বিশ্বাসী নয় বলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে বার বার অভিযোগ এসেছে।

আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর প্রথম সংবাদ সম্মেলিনে তালেবান বলেছিল, ‘নারীরা আমাদের কাঠামোর মধ্যে থেকে কাজ করতে পারবেন। ইসলামি শরিয়া আইন অনুযায়ী নারীদের অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে।’

তালেবান আসার পর দ্রুতই কাবুলের পরিস্থিতি দ্রুত বদলে যেতে শুরু করেছে। আর এই বদলে যাওয়ার দৃশ্য দেখা যাচ্ছে, কাবুলজুড়ে দেয়ালে দেয়ালে আঁকা নারীদের ছবি মুছে ফেলার পাশাপাশি নারীর ছবিতে বিজ্ঞাপনের বিলবোর্ডও গুঁড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //