দ্বিতীয় বিয়ের কথা বলায় স্বামীকে গলা টিপে হত্যা

স্ত্রী সংসার থাকতেও দ্বিতীয় বিয়ের ইচ্ছা ছিল তার। এনিয়ে পরিবারে ছিল মনোমালিন্য। গত মঙ্গলবারও এভাবে শুরু হয় ঝগড়া। একপর্যায়ে স্বামীকে মাটিতে ফেলে গলা টিপে মেরে ফেলেন তিনি।

ভারতের গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে আজ শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা যায়, নিহতের নাম রাকেশ মোহন্ত, বয়স ৩২। স্ত্রী নীতুদেবী ও পাঁচ বছরের মেয়েকে নিয়ে গুজরাটের সুরতের পালীগাম গ্রামে থাকতেন তিনি। পেশায় দিনমজুর ছিলেন রাকেশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার দিন রাতে রাকেশ নীতুদেবীকে বলেছিলেন, মেয়েকে নিয়ে তার ঘর ছেড়ে চলে যেতে। কারণ তিনি জন্মস্থান বিহারে ফিরে যেতে চান এবং সেখানে গিয়ে দ্বিতীয়বার বিয়ে করার চিন্তা করছেন।

এ কথা শুনে নীতুদেবীর প্রচণ্ড রাগ হয়। এমনিতে রাকেশ এমন কথা প্রায়ই বলতেন, তা নিয়ে অশান্তি হলেও পরে আবার স্বাভাবিক হয়ে যেতো। কিন্তু মঙ্গলবার আর নিজেকে সামলাতে পারেননি নীতু। অভিযোগ, রাকেশ বিয়ের কথা বলতেই তার ওপর চড়াও হন স্ত্রী। স্বামীকে মাটিতে ফেলে বুকের ওপর চেপে বসেন এবং গলা টিপে ধরেন। একপর্যায়ে রাকেশ নিথর হয়ে পড়লে নীতু পড়শিদের জানান, তার স্বামী অজ্ঞান হয়ে গেছেন।

কিন্তু পড়শিদের সন্দেহ হওয়ায় তারা পুলিশে খবর দেন। ততক্ষণে মেয়েকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন নীতুদেবী। পরে পুলিশ গিয়ে রাকেশের মরদেহ উদ্ধার করে। তল্লাশি চালিয়ে অভিযুক্ত স্ত্রীকেও গ্রেফতার করে।

রাকেশের ভাই দশরথ মোহন্ত নীতুদেবীর বিরুদ্ধে একটি হত্যামামলা দায়ের করেছেন।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //