কেজরিওয়ালকে জেলে নেয়ার আবেদন ভারতের সুপ্রিম কোর্টে খারিজ

ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির (আপ) নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়ালের জামিন খারিজ করতে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। তবে আজ বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ইডির আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত।

সুপ্রিম কোর্ট জানান, এ বিষয়ে তারা যে রায় দিয়েছেন, তা অনেক ভেবেচিন্তে দেওয়া। আইনের চোখে যা যুক্তিযুক্ত তা–ই করেছেন। কেজরিওয়ালকে ২ জুন কারাগারে ফিরতে হবে। সুপ্রিম কোর্ট এ কথাও বলেন, ওই রায় মোটেই ব্যতিক্রমী নয়।

আবগারি (মদ) মামলায় কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তার করেছিল ইডি। সেই গ্রেপ্তার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন কেজরিওয়াল। তাঁর দাবি, নির্বাচনী প্রচারে তিনি যাতে অংশ নিতে না পারেন, সে জন্য কোনো প্রমাণ ছাড়াই ইডি তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে। 

নিম্ন আদালত ও হাইকোর্টে আবেদন খারিজ হয়ে গেলেও সুপ্রিম কোর্ট কেজরিওয়ালের বক্তব্য মেনে নেন এবং তাঁকে শর্তাধীনে জামিন দেন। সেই থেকে কেজরিওয়াল নিরন্তর প্রচার করে চলেছেন। বিজেপির রাজনীতিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করে চলেছেন। তার জনসভা ও রোড শোতে বিপুল জনসমাগম হচ্ছে।

কেজরিওয়ালের দল বিজেপিবিরোধী ‘ইন্ডিয়া’ জোটের শরিক। দিল্লি, হরিয়ানা ও চন্ডীগড়ে কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতা করে নির্বাচনে লড়ছে দুই দল। তাঁর মুক্তি অভূতপূর্ব সাড়াও ফেলেছে। রাজধানীর ৭টি আসনে আপ ও কংগ্রেস একযোগে প্রচার চালাচ্ছে। 

কেজরিওয়ালের মুক্তিতে ‘ইন্ডিয়া’ জোটে নতুন প্রাণ সঞ্চার হওয়ায় রীতিমত বিপাকে পড়েছে বিজেপি। তার জামিন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অমিত শাহ বলেন, কেজরিওয়ালকে বিশেষ সুযোগ (স্পেশাল ট্রিটমেন্ট) দেওয়া হয়েছে। 

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //