ভাঙা চাল আমদানির অনুমতি

সরকার ১৩টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ভাঙা চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে। ১৭ হাজার টন ভাঙা চাল আমদানির অনুমতি দিয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

গতকাল বুধবার (১৭ মার্চ) পাঠানো ওই চিঠিতে চাল আমদানির শর্ত হিসেবে বলা হয়, আগামী ২৮ মার্চের মধ্যে এলসি খুলতে হবে ও এ সংক্রান্ত তথ্য খাদ্য মন্ত্রণালয়কে তাৎক্ষণিক ইমেইলে অবহিত করতে হবে। বরাদ্দ পাওয়া আমদানিকারকদের এলসি খোলার ১৫ দিনের মধ্যে ৫০ ভাগ ও পরবর্তী ১৫ দিনের মধ্যে বাকি চাল দেশে বাজারজাত করতে হবে।

চিঠিতে আরো বলা হয়, বরাদ্দের অতিরিক্ত আইপি ইস্যু করা যাবে না। আমদানি করা চাল স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠানের নামে পুনরায় প্যাকেটজাত করা যাবে না। আমদানি করা চাল প্লাস্টিক বস্তায় বিক্রি করতে হবে। এছাড়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্যাংকে এলসি খুলতে ব্যর্থ হলে বরাদ্দ বাতিল হিসেবে গণ্য হবে বলেও শর্ত দিয়েছে সরকার।

খাদ্য মন্ত্রণালয় জানায়, চালের বাজার দর নিয়ন্ত্রণ ও স্থিতিশীল রাখতে বেসরকারি পর্যায়ে মোট ৩২০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে ১০ লাখ ১৪ হাজার ৫০০ টন সেদ্ধ চাল আমদানির অনুমতি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে গত ৩ জানুয়ারি ১০টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ পাঁচ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। পরদিন ৪ জানুয়ারি আরো ১৯টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে দুই লাখ ২৫ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দেয়া হয়।

গত ১২ মার্চ ২৯টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৩৭ হাজার ৫০০ টন আতপ চাল আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। সর্বশেষ গত ১ মার্চ ৫৭টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ৮০ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দেয়া হয়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh