বৈধ জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান থেকে গহনা কেনার আহ্বান

প্রতারণা থেকে বাঁচতে বৈধ জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান থেকে গহনা কিনতে ক্রেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। 

সংগঠনটি বলেছে, বাজুসের সদস্য ছাড়া অন্য প্রতিষ্ঠান থেকে অলঙ্কার না কেনার অনুরোধ করা হচ্ছে। অবৈধ প্রতিষ্ঠান থেকে অলঙ্কার কিনে প্রতারিত হলে, তার দায় নেবে না বাজুস।

আজ মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) রাজধানীর পান্থপথে বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সে বাজুসের নতুন সদস্য বরণ অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের চেয়ারম্যান ও সংগঠনটির সাবেক সভাপতি এম এ ওয়াদুদ খান।

অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য দেন বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের ভাইস চেয়ারম্যান ও সংগঠনটির সহ-সম্পাদক মাসুদুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের সদস্য সচিব ও সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মো. রিপনুল হাসান। বক্তব্য দেন—বাজুসের সিনিয়র সহ-সভাপতি গুলজার আহমেদ ও সাবেক সভাপতি ডা. দিলীপ কুমার রায়।

উপস্থিত ছিলেন বাজুসের সহ-সম্পাদক বিধান মালাকার, বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের সদস্য কাজী এমদাদুল হক, শিবু প্রসাদ মজুমদার, শাওন সাহা, বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের সদস্য রকিবুল ইসলাম চৌধুরী, বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ট্যারিফ অ্যান্ড ট্যাক্সেশনের সদস্য হাজী মো. হারুন উর রশিদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে নতুন প্রায় ২০০ সদস্যকে ফুল দিয়ে বরণ করা হয়। এ সময়ে তাদের হাতে প্রাথমিক সদস্য পদের চিঠি হস্তান্তর করেন বাজুস নেতারা।

বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের চেয়ারম্যান এম এ ওয়াদুদ খান নতুন সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, ‘সকল প্রকার ক্রয়-বিক্রয়ের মেমো অথবা ইনভয়েসে বাজুস আইডি নম্বর থাকতে হবে। সকল জুয়েলারি শো-রুমে বাজুস আইডি নম্বর এবং লোগোসহ স্টিকার থাকতে হবে। পাশাপাশি সব জুয়েলারি ব্যবসায়ীকে অতিসত্বর বাজুসের সদস্য পদ গ্রহণ করার অনুরোধ করছি।’

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //