যেসব এলাকায় মিলবে ফাইভ-জি

আগামী ১২ ডিসেম্বর দেশে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হচ্ছে ফাইভ-জি। রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় এই নেটওয়ার্ক চালু করবে। ১২ ডিসেম্বর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবসে’ ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক চালু হলেও সবাই এই সেবা ব্যবহার করতে পারবেন না। কয়েকটি বিশেষ স্থাপনায় এই নেটওয়ার্ক চালু করা হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা প্রাথমিকভাবে কয়েকটি জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় ফাইভ-জি চালুর পরিকল্পনা করেছি। এর মধ্যে রয়েছে বঙ্গভবন, গণভবন, সংসদ ভবন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সচিবালয় ও ধানমন্ডি ৩২ নম্বর। এছাড়া আমাদের আরও  দুটি স্থাপনায় ফাইভ-জি চালুর পরিকল্পনা রয়েছে। এগুলো হলো টুঙ্গিপাড়া ও রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকা। যদিও এখনো সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে ১৪টি মোবাইল তৈরির কারখানা রয়েছে। এর উদ্যোক্তারা আমাদের জানিয়েছেন, সবারই ফাইভ-জি ফোন তৈরির সক্ষমতা রয়েছে। সময় হলেই তারা ফাইভ-জি ফোন তৈরি করবেন। স্যামসাং আমাকে জানিয়েছে, তারা এরই মধ্যে ফাইভ-জি ফোন তৈরি করেছে।’

আগামী বছর দেশের ২০০টি গুরুত্বপূর্ণ সাইটে (টাওয়ারে) এই নেটওয়ার্ক চালু করবে অপারেটরটি। যদিও ২০২২ সালে অন্যান্য মোবাইল ফোন অপারেটরও ফাইভ-জি চালু করবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //